chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

রোনালদোর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ সম্বলিত ব্যানার

ওল্ড ট্রাফোর্ডের আকাশে

ক্রীড়া ডেস্ক: ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর হাতে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন দাবি করা এক নারীর সমর্থনে ব্যানার উড়ানো হয়েছে ওল্ড ট্রাফোর্ডের আকাশে।

গত শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) নিউক্যাসেল ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর অভিষেক ম্যাচ চলাকালীন সময়ে লেভেল আপ নামক একটি নারীবাদী সংগঠন ওল্ড ট্রাফোর্ডের আকাশে একটা ব্যানার উড়িয়েছে। ব্যানারটিতে লেখা ছিল – ‘ক্যাথরিন মায়োরগাকে বিশ্বাস করুন।’

ক্যাথরিন মায়োরগা যুক্তরাষ্ট্রের একজন নারী, যিনি ২০১৮ সালে রোনালদোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছিলেন। অভিযোগের সন্দেহাতীত কোনো প্রমাণ না পাওয়ায় তদন্তটিও থেমে যায়। তবে এখনও রোনালদোকে অনেকেই দোষী মনে করেন। লেভেল আপ নামক সংগঠনটির বিশ্বাসও সেরকম।

লেভেল আপ তাদের টুইটারে লিখেছে, ম্যান ইউ’র মাঠের উপর প্লেনের মাধ্যমে আমরা ব্যানার উড়িয়েছি এবং যে বার্তাটি দিয়েছি তা খুবই সাধারণ। সেটা হলো, ক্যাথরিন মায়োরগাকে বিশ্বাস করুন। ফুটবল অঙ্গনে যৌন নির্যাতনের মতো ব্যাপারে নীরবতার নিরসনও চাই আমরা।

মায়োরগা বলেছেন, ২০০৯ সালে লাস ভেগাসের একটি হোটেল কক্ষে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন তিনি। সব ঘটনা চেপে যাওয়ার শর্তে ২০১০ সালে তিনি এবং তার আইনজীবী রোনালদোর কাছ থেকে ২ লাখ ৭০ হাজার পাউন্ড গ্রহণ করেন বলেও তিনি দাবি করেন। কিন্তু ঘটনাটি চেপে রাখতে পারেননি মায়োরগা। মানসিকভাবে বিধ্বস্ত হয়ে গেছিলেন তিনি ঘটনাটিকে গোপন করতে গিয়ে। তাই সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খোলেন পরে।

নতুন করে শুরু হওয়ার পর সন্দেহাতীত কোনো প্রমাণ না পাওয়ায় তদন্তটি থেমে যায় ২০১৯ সালে। কিন্তু এখনও চেষ্টা করে যাচ্ছেন মায়োরগা। ৫ কোটি ৬০ লাখ পাউন্ডের ক্ষতিপূরণের মামলা করেছেন তিনি সিআর সেভেনের বিরুদ্ধে। সেই মামলাটি এখনও চলছে।

জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...