chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

ক্ষমা চাইলেন আশরাফ গানি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তালেবান রাজধানী কাবুল দখল করার পর অনিচ্ছা সত্ত্বেও দেশ ছেড়ে পালানোয় জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গানি।

তবে, রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে অর্থ নিয়ে পালানোর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি।

মাইক্রো ব্লগিং ওয়েবসাইট টুইটারে প্রকাশিত এক বার্তায় আশরাফ গানি বলেন, ১৫ আগস্ট রক্তপাত এড়াতে নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের অনুরোধে দেশ ছেড়েছিলেন তিনি। জীবনের কঠিন এক সিদ্ধান্ত হলেও লাখো মানুষের জীবনরক্ষার স্বার্থে এছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না।

এর আগে, তার বিরুদ্ধে গাড়ি ও ব্যাগভর্তি করে প্রায় ১৭ কোটি মার্কিন ডলার সঙ্গে নিয়ে পালানোর অভিযোগ ওঠে।

এদিকে, আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার তিন সপ্তাহ পর ইসলামি আমিরাত অব আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করেছে তালেবান। শুরু থেকেই নেতৃত্বে মোল্লা আব্দুল গনি বারাদারের নাম আসলেও অন্তর্বর্তী সরকারের ভারপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে মোল্লা হাসান আখুন্দকে। বারাদার ও আব্দুল সালাম হানাফি হয়েছেন ভারপ্রাপ্ত উপপ্রধানমন্ত্রী। গুরুত্বপূর্ণ প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পেয়েছেন তালেবানের সহপ্রতিষ্ঠাতা মোল্লা ওমরের ছেলে মোল্লা ইয়াকুব।

হাক্কানি নেটওয়ার্কের প্রতিষ্ঠাতার ছেলে সারাজউদ্দিন হাক্কানি পেয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব। সব পদ ভারপ্রাপ্ত বলে অন্তর্বর্তী সরকার এখনো চূড়ান্ত নয় উল্লেখ করে তালেবান মুখপাত্র জানান, শিগগিরই বাকি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্তদের নামও ঘোষণা করা হবে।

মঙ্গলবার অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের পরপরই মন্ত্রীদের ইসলামিক আইন বা শরিয়া আইন বাস্তবায়নের নির্দেশ দেন তালেবানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা মাওলায়ি হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা। দেশের স্বার্থ ও ইসলামিক আইনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক নয় এমন আন্তর্জাতিক আইন ও চুক্তি মেনে চলারও কথা জানিয়ে বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহযোগিতা কামনা করেছে তালেবান।

অন্যদিকে, আফগানিস্তানের নতুন সরকার নিয়ে চীন-পাকিস্তান-রাশিয়া-ইরানের হস্তক্ষেপের বিষয়টি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

জেএইচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...