chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

অন্তর্বর্তী সরকার ঘোষণা করল তালেবান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আফগানিস্তানে নতুন অন্তর্বর্তী সরকার ঘোষণা করেছে তালেবান। নানা নাটকিয়তার পর মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে তালেবানের প্রধান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ নতুন সরকারের ঘোষণা দেন।

রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয়ার চার সপ্তাহ পর সরকারের ঘোষণা এলো তালেবানের পক্ষ থেকে। তবে পূর্ণাঙ্গ সরকার গঠন না করে গঠন করা হয়েছে অন্তর্বর্তী সরকার। মোল্লা মোহাম্মদ হাসান আখুন্দকে প্রধান করে আফগানিস্তানের তত্ত্বাবধায়ক সরকার ঘোষণা করে তালেবান।

উপ-প্রধানমন্ত্রী করা হয়েছে দুজনকে। তারা হলেন তালেবানের সহ-প্রতিষ্ঠাতা আবদুল গনি বারাদার ও মোল্লা আবদুল সালাম। তিন সপ্তাহ আগে আফগানিস্তানের বেশির ভাগ এলাকার নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করার পর এই সরকার ঘোষণা করা হলো।

তালেবানের প্রধান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান হবেন মোল্লা হাসান আখুন্দ এবং এই সরকারের উপ-নেতা হবেন তালেবান সহ-প্রতিষ্ঠাতা আবদুল গনি বারাদার।

তিনি জানান, তালেবানের উপ-নেতা সিরাজউদ্দিন হাক্কানি ভারপ্রাপ্ত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, আমির খান মুত্তাকি ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী, রাজনৈতিক প্রধান শের মোহাম্মদ আব্বাস স্টানিকজাই ভারপ্রাপ্ত উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং মোল্লা ইয়াকুব ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী হবেন।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম দ্য ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোল্লা হাসান আখুন্দ বর্তমানে তালেবানের প্রবল সিদ্ধান্ত-গ্রহণকারী পরিষদ রেহবারি শূরা বা নীতিনির্ধারণী পরিষদের প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন। তালেবানের তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত কান্দাহারে জন্ম তার। তাকে তালেবানের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম একজন হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্রে হামলার ও কাবুলে তালেবান সরকারের পতনের পরে পাকিস্তানের বালুচিস্তানে গঠিত তালেবান ‘কোয়েটা সুরা’র নেতৃত্বে ছিলেন আখুন্দ। বারাদারের মতোই তাকেও ২০১০ সালে পাকিস্তান প্রশাসন গ্রেফতার করেছিল। পরবর্তীতে মুক্তি পান তিনি।

প্রায় দু’দশক ধরে আখুন্দজাদার ঘনিষ্ঠতম সহযোগী হিসেবে পরিচিত আখুন্দ তালিবানের শান্তি আলোচনা বিষয়ক সিদ্ধান্ত গ্রহণের দায়িত্বপ্রাপ্ত ‘রেহবারি সুরা’রও প্রধান ছিলেন।

আরএস/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...