chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

টানা পাঁচ ড্র, শক্তি কমছে এমবাপ্পের ফ্রান্সের!

খেলা ডেস্ক: টানা পাঁচ ম্যাচে কোনো জয় নেই কিলিয়ান এমবাপ্পে-অ্যান্তোনি গ্রিজম্যানের ফ্রান্সের। সবশেষ কাতার বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে ইউক্রেনের বিপক্ষে ১-১ গোলে ড্র করেছে তারা। যা নিয়ে চিন্তিত কিলিয়ান এমবাপ্পেদের কোচ দিদিয়ের দেশম। কেউ কেউ প্রশ্ন করছেন, তাহলে কি শক্তি কমছে রাশিয়া বিশ্বকাপ জয়ীদের?

টানা পাঁচ ম্যাচে ড্র করার মধ্যে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ হিসেবে আরও আছে বসনিয়া-হার্জেগোভিনা, সুইজারল্যান্ড, পর্তুগাল ও হাঙ্গেরির নাম। এর মধ্যে শেষের তিনটি ড্র ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে।

ফ্রান্সের বর্তমান পারফরম্যান্স দিদিয়ের দেশমের কপালে চিন্তার ভাজ ফেলতেই পারে। রাশিয়া বিশ্বকাপ জেতার পর এত তাড়াতাড়ি ফর্মে পার্থক্য চলে এলো তাদের! দেশম খুবই চিন্তিত দল নিয়ে। অধিনায়ক হুগো লরিউসও সতীর্থদের আরও প্র্যাক্টিক্যাল হতে বলেছেন।
ফুটবলবোদ্ধারা ফ্রান্সের ফর্মের এই অবনতির কারণ নিয়েও আলোচনা-সমালোচনায় ব্যস্ত। অনেকে মনে করছেন, করিম বেনজেমার আগমণ দলে নতুন করে ভারসাম্যহীনতা তৈরি করেছে। ফ্রান্সভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম লে একুইপেও এমনটি মনে করছে। এই ফর্মহীনতার মধ্যেও ফ্রান্সের জন্য সুখকর বিষয় হচ্ছে কাতার বিশ্বকাপ বাছাইয়ে তারা এখনও ডি গ্রুপের সেরা দল। ৫ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার শীর্ষে রয়েছে তারা।

সর্বশেষ শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাতে ইউক্রেনের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে দিদিয়ের দেশমের দল। ইনজুরির কারণে দলে ছিলেন না কিলিয়ান এমবাপ্পে। তাতে কি? অ্যান্থনি মার্শাল, পল পগবা, গ্রিজম্যানদের মতো তারকা ঠাসা দল নিয়েই ইউক্রেনের বিপক্ষে সেরা একাদশ সাজান ফ্রান্স কোচ দিদিয়ের দেশম। ৪-৩-৩ থাকে দেশমের ফরমেশন।

ডি গ্রুপের বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের আগের ম্যাচে ঘরের মাটিতে বসনিয়া-হার্জেগোভিনার বিপক্ষে ড্র করে পয়েন্ট খোয়ায় ফ্রান্স। তাই ইউক্রেনের মাঠ থেকে পুরো ৩ পয়েন্ট নিয়ে ঘরে ফেরার লক্ষ্য ছিল বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের। বল দখল কিংবা বল নিয়ন্ত্রণে এগিয়ে থেকেও এদিন যেন নিজেদের খুজেঁ পাচ্ছিলেন না ফরাসি ফরোয়ার্ডরা। উল্টো ইউক্রেনের আক্রমণের সামনে মুখ থুবরে পড়ে তাদের রক্ষণভাগ। প্রথমার্ধের শেষদিকে পিছিয়ে পড়ে অতিথিরা। স্বাগতিকদের হয়ে গোল করেন মিডফিল্ডার শাপারেঙ্কো।

পিছিয়ে থেকে বিরতির পর ফিরে আক্রমণে ধার বাড়ায় ফ্রান্স। সমতায় ফিরতে দেরি হয়নি ফরাসিদের। ইউক্রেন গোলরক্ষক পিয়েতোভের ভুলের সুবাদে ম্যাচ ফেরে সমতায়। অ্যান্থনি মার্শালের গোলে স্বস্তি ফেরে অতিথি শিবিরে।

এন-কে

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...