chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

ব্যথা যখন হাতে

ডেস্ক নিউজ: কাঁধের সন্ধিতে ব্যথা। হাত ওপরে তুলতে পারেন না। চুল আঁচড়াতে কষ্ট, পেছনে বোতাম লাগানো বা পেছনের পকেটে মানিব্যাগ রাখা অসম্ভব হয়ে উঠছে। এই সমস্যার নাম ফ্রোজেন শোল্ডার। ডাক্তারি নাম অ্যাডেসিভ ক্যাপসুলাইটিস।

উপসর্গ
হাতের সঙ্গের ঘাড়ের জয়েন্টে ব্যথা, জয়েন্ট শক্ত হয়ে যাওয়া, জয়েন্ট নাড়ানোর ক্ষমতা কমে যাওয়া, আক্রান্ত পাশে শুতে না পারা, হাতে দুর্বলতা চলে আসা ইত্যাদি। এই সমস্যাগুলো হঠাৎ একদিনে শুরু হতে পারে আবার কাঁধে সামান্য ব্যথা পাওয়ার পরও শুরু হতে পারে। শুরুটা যে কারণেই হোক না কেন, সমস্যা আর যাই থাকুক রোগীকে সাধারণত তীব্র ব্যথা নিয়েই চিকিৎসকের কাছে আসতে দেখা যায়।

যে কারণে হয়
ফ্রোজেন শোল্ডার যে কারণে হয়
এই রোগের প্রধান কারণ এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে এই রোগ হওয়ার আশঙ্কা বেশি থাকে। যেমন-
ডায়াবেটিস মেলাইটাস, ঘাড়ের জয়েন্টে আঘাত পেলে, কোনো কারণে জয়েন্ট অনেকদিন নাড়ানো না হলে, ফুসফুস, হূৎপিন্ডের বা হাতের অপারেশনের পরবর্তী অবস্থায় থাইরয়েডের রোগ হলে

করণীয়
হাতের পেন্ডুলাম মুভমেন্ট করুন। অনেকটা নৌকা বাওয়ার মতো ব্যায়াম।

সুস্থ হাতটি দিয়ে আক্রান্ত হাতকে ধরে ওপর দিকে তুলুন, যতটা তোলা যায়। এবার মাথার পেছন দিকে নেওয়ার চেষ্টা করুন। এই ব্যায়ামটা দিনে কয়েকবারই করুন।
আক্রান্ত হাত দিয়ে সামনে বাতাসে বৃত্ত তৈরি করুন। যতটা সম্ভব বড় পরিধির বৃত্ত তৈরি করতে চেষ্টা করুন।
গোসল করার পর গামছা বা তোয়ালেকে রোল করে দুই হাত দিয়ে ধরে পেছন দিকে পিঠ মোছার চেষ্টা করুন। ওপর-নিচ করতে থাকুন।
ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করুন। ব্যথা থাকলে ব্যথানাশক ওষুধ খান চিকিৎসকের পরামর্শে। ব্যথা না কমলে ব্যায়াম করা সম্ভব হবে না।
বাড়িতে ব্যায়াম করে না কমলে ফিজিওথেরাপি নিন।

 

Loading...