chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

পাবনায় স্কুলশিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ, চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক: পাবনায় এক স্কুলশিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করা হলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। বুধবার বিকেলে তার মৃত্যু হয়।

 

তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছে, ভুল তথ্য দিয়ে তাকে ভর্তি করা হয়েছিল এবং মৃত্যুর পর পরিবার ধর্ষণের ঘটনা প্রকাশ করেছে।

১৩ বছর বয়সী ওই স্কুলশিক্ষার্থীকে ধর্ষণ ও তার মৃত্যুর ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

নিহত স্কুলছাত্রীর মা বলেন, বুধবার দুপুরে তারা কাজে গেলে বাড়িতে একা থাকার সুযোগ নিয়ে প্রতিবেশী নিহাদ নামে একজন তার মেয়েকে ধর্ষণ করে। বাড়িতে ফিরে মেয়েকে অচেতন অবস্থায় দেখতে পেয়ে দ্রুত পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

নিহতের মায়ের অভিযোগ এক বছর ধরে নিহাদ তার মেয়েকে উত্যক্ত করে আসছিল।

তিনি জানান, দুপুর পৌনে দুইটার দিকে হাসপাতালে মেয়েকে ভর্তি করা হয়, বেলা সাড়ে তিনটার দিকে চিকিৎসক মৃত্যুর খবর জানান।

পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. কে এম আবু জাফর বলেন, ধর্ষণের কথা গোপন করে পেটের ব্যথার কথা বলে মেয়েটিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে, ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে বলে জানান তিনি।

নিহতের মায়ের অভিযোগ, হাসপাতালে ভর্তির সময় নিহাদ ও তার মা সাথেই ছিল এবং তারা সত্য গোপন করতে তাদেরকে বাধ্য করে।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বলেন, পরিবারের অভিযোগসহ অন্যান্য সব বিষয় মাথায় রেখে ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এনএনআর/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...