chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

এবার আফগানিস্তান-পাকিস্তান সিরিজ স্থগিত

ক্রীড়া ডেস্ক : তালেবান আফগানিস্তানের দখল নিয়েছে। এরপর থেকেই শঙ্কা শুরু হয় দেশটির ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ নিয়ে। হয়তো সে শঙ্কার ফল দেখতে শুরু করেছে বিশ্ব।

পাকিস্তানের বিপক্ষে ১ সেপ্টেম্বর থেকে শ্রীলঙ্কায় তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলার কথা ছিল আফগানিস্তানের। কিন্তু দেশটির বিদ্যমান পরিস্থিতিতে সিরিজটি আয়োজন স্থগিত করা হয়েছে। পরবর্তী সূচি অনুযায়ী ২০২২ সালে সিরিজটি খেলবে দুই দল।

দুই বোর্ডের সম্মতিতেই আপাতত সিরিজ স্থগিত করা হয়েছে। মূলত যাত্রাপথের বিপত্তির কারণে খেলোয়াড়দের মানসিক স্থিতিশীলতার বিষয়ে সন্দেহ থাকায় এ সিদ্ধান্ত নেয় বোর্ড।

বিভিন্ন দেশের আটকে পড়া নাগরিকদের উদ্ধারকারী বিমান ছাড়া আফগানিস্তান থেকে অন্য দেশে যাত্রীবাহী আকাশযান চলছে না। তাই সড়কপথেই খেলোয়াড়দের যাওয়া লাগবে পাকিস্তান। সেখান থেকে দুবাই হয়ে তাদের যাওয়ার কথা কলম্বো।

আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (এসিবি) প্রধান নির্বাহী হামিদ শিনওয়ারি সিরিজ স্থগিতের বিষয়টি সংবাদমাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন।

একই তথ্য জানিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডও। তারা এক টুইটে জানিয়েছে, এসিবির অনুরোধ তারা মেনে নিয়েছেন।

হামিদ বলেন, সন্ধ্যা পর্যন্ত আমরা সিরিজটি খেলার বিষয়ে ইতিবাচক ছিলাম। পিসিবিকে ধন্যবাদ যে তারা আমাদের সব ধরনের সহায়তা নিশ্চিত করতে রাজি হয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, কিছু বিষয় বিবেচনায় আনতে হয়েছে, বিশেষ করে আমাদের খেলোয়াড়দের মানসিক অবস্থা। আমরা দেখেছি তারা মানসিকভাবে সিরিজটির জন্য প্রস্তুত নয়। তাদের আরও সময় দিতে হবে অবস্থার সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে।

এদিকে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের এক টুইটবার্তায় বলা হয়, খেলোয়াড়দের মানসিক অবস্থা স্থিতিশীল না হওয়া, যাতায়াত ব্যবস্থা এবং পর্যাপ্ত সম্প্রচার ব্যবস্থা করতে না পারায় এসিবি চেয়েছে সিরিজটি স্থগিত করতে। দুই বোর্ডই ২০২২ সালে সিরিজটি খেলার বিষয়ে চেষ্টা করবে।

গত ১৫ আগস্ট রাজধানী কাবুলে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে প্রবেশের মাধ্যমে আফগানিস্তানের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এর পর থেকেই শঙ্কা জাগে দেশটির ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ নিয়ে। হয়তো সেই শঙ্কার ফল দেখতে শুরু করেছে বিশ্ব।

এসএএস/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...