chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

মঙ্গলবার ঢাকায় আসছে নিউজিল্যান্ড 

খেলা ডেস্ক: বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে আগামীকাল ২৪ আগস্ট ঢাকায় পা রাখছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দল। মঙ্গলবার দুপুর ১২টা ৫মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামবে নিউজিল্যান্ড।

যদিও দল আসার আগেই দেশটির দুই ক্রিকেটার কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম আর ফিন অ্যালেন শুক্রবারই (২০ আগস্ট) ঢাকায় পা রাখেন। বাংলাদেশের কোভিড প্রটোকল ও নিরাপত্তা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন তারা।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থার (আইসিসি) ফিউচার ট্যুর প্ল্যান (এফটিপি) অনুযায়ী ৩ ম্যাচের এই সিরিজ হওয়ার কথা থাকলেও দুই ম্যাচ বেড়ে মোট পাঁচটি ম্যাচে অংশ নেবে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড।

সূত্রের বরাতে জানা গেছে, মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) দুপুরে বিমানবন্দরে নেমে সরাসরি হোটেলে উঠবে সফরকারী নিউজিল্যান্ড দল। এরপর তিন দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে ২৭ আগস্ট থেকে অনুশীলন শুরু করবে কিউইরা। এদিকে, একই দিন অনুশীলন শুরু করবে মাহমুদউল্লাহ বাাহিনীও।

আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বাংলাদেশের ৫ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ৩, ৫, ৮ ও ১০ সেপ্টেম্বর মাঠে গড়াবে সিরিজের বাকি ম্যাচগুলো। সিরিজের প্রতিটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

এদিকে বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের ম্যাচগুলোর সময় এগিয়ে আনা হয়েছে। সন্ধ্যায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সফরকারী দলের দর্শকদের কথা মাথায় রেখে ম্যাচগুলো শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায়।

টম ল্যাথামের নেতৃত্বে বাংলাদেশে আসছে দ্বিতীয় সারির নিউজিল্যান্ড দল। পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য বাংলাদেশের বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের স্কোয়াড ঘোষণায় এমনটিই দেখা যায়।

শুধু তাই নয় এ সফরে নিউজিল্যান্ডের বিশ্বকাপ স্কোয়াডের কেউই নেই। ঘোষিত এই স্কোয়াডে নেই নিয়মিত অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনও।

নিউজিল্যান্ড এবং বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি পরিসংখ্যানে এগিয়ে আছে কিউইরা। নিউজল্যান্ডের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ১০টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। কিন্তু কোন ম্যাচেই জয়ের দেখা পায়নি টাইগাররা।

তবে বর্তমানে ফর্মের তুঙ্গে আছে সাকিব-মোস্তাফিজরা। অস্ট্রেলিয়াবধের পর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজেও একই স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ। মিরপুরের ‘হোম অব ক্রিকেট’ থেকে আবারও বাঘের গর্জন শোনাতে চায় বিশ্বকে। সে লক্ষ্যেই পরিকল্পনা আঁটছে রাসেল ডমিঙ্গোর শিষ্যরা।

আরএস/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...