chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

কুরবানি ত্যাগ, চিত্তশুদ্ধি ও পবিত্রতার মাধ্যম: আবদুচ ছালাম

ডেস্ক নিউজ: চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সাবেক চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম বলেছেন, পবিত্র ঈদুল আজহা আমাদেরকে সকলের সাথে সদ্ভাব, আন্তরিকতা এবং বিনম্রতা প্রদর্শনের সুযোগ করে দেয়।

মুসলমানদের জীবনে এই সুযোগ সৃষ্টি হয় বছরে মাত্র দু’বার, একটি হলো ঈদুল ফিতর আরেকটি হলো ঈদুল আযহা। ঈদুল আযহা উৎসবের একটি গুরুত্বপূর্ণ ও পবিত্র অঙ্গ হচ্ছে কুরবানি। কুরবানি হল ত্যাগ, চিত্তশুদ্ধি এবং পবিত্রতার মাধ্যম।

অন্যদিকে ঈদের জামাতে মানুষে মানুষে পারস্পরিক ভেদাভেদ ভুলে ধনী-দরিদ্র, রাজা-প্রজা একই কাতারে দাঁড়িয়ে দুই রাক‘আত ছালাত আদায় করেন এবং পরস্পরে কুশল বিনিময় করে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়, জীবনকে স্বাচ্ছন্দ্যময় এবং আন্তরিক মহানুভবতায় পরিপূর্ণ করে।

তিনি বলেন, বিগত বছরের মত এবারও ঈদের এই সময়টাতে বৈশ্বিক মহামারী কোভিড-১৯ এর সংক্রমনে সারাদেশের মত চট্টগ্রামেও উদ্বেগ জনক পরিস্থিতি বিদ্যমান। তাই, সমষ্টিগত আনন্দ উদযাপন আমাদেরকে এবারও পারস্পরিক দুরত্ব মেনেই করতে হবে।

আজ সোমবার (১৯ জুলাই) সন্ধ্যায় গণমাধ্যমে প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এসব কথা বলেন। তাছাড়া বিজ্ঞপ্তিতে পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষে নগরবাসীকে তিনি শুভেচ্ছা জানান।

ঈদুল আযহার দিন সমগ্র মুসলিম জাতি ইব্রাহীমী সুন্নাত পালনের মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের প্রাণপণ চেষ্টা করবে এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করে গণমাধ্যমে প্রেরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি আরো বলেন, ঈদের উৎসব একটি ধর্মীয় উৎসব, সমষ্টিগতভাবে আনন্দ লাভের উপলক্ষও বটে।

কুরবানির মাধ্যমে ইব্রাহীমী সুন্নাত পালনের মধ্য দিয়ে লোভ, দ্বেষ, মোহকে বিসর্জন দিয়ে পরিশুদ্ধ জীবন গঠনের মাধ্যমে শান্তিময় সমাজ গঠনে ব্রতী হওয়ার আহ্বান জানান নগর আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম।

তাছাড়া বিশ্ববাসীকে করোনা থেকে মুক্তি দিতে মহান রাব্বুল আল আমিনের দরবারে প্রার্থনা এবং দেশবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ জানান।

আরএস/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...