chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

সিরিজ জিততে বাংলাদেশের লক্ষ্য ২৪১

খেলা ডেস্ক: জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে বড় ব্যবধানে জয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে সিরিজ জয়ের সুযোগ তৈরি হয়েছে বাংলাদেশের। ম্যাচটি জিততে টাইগারদের প্রয়োজন ২৪১ রান। ব্যাটিংবান্ধব উইকেট হওয়ায় জয়ের সুবাস পাচ্ছেন তামিম-সাকিবরা।

প্রথমে ব্যাট করে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৪০ রান করে স্বাগতিকরা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেন ওয়েসলি মাধেভেরে। এছাড়া ৪৬ রান করেন অধিনায়ক ব্রান্ডন টেইলর। ৩০ রান করেন সিকান্দার রাজা।

বাংলাদেশ দলের হয়ে তরুণ পেসার শরিফুল ইসলাম শিকার করেন ১০ ওভারে ৪৬ রানে ৪ উইকেট। ৪২ রানে ২ উইকেট শিকার করেন সাকিব আল হাসান।

রোববার (১৮ জুলাই) হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে জিম্বাবুয়ে। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৩৩ রানে তাসকিন আহমেদের গতি আর মেহেদী হাসান মিরাজের অফ স্পিনে বিভ্রান্ত হয়ে ফেরেন দুই ওপেনার টিনাসি ও মারুমা।

এরপর রাগিস চাকাভাকে সঙ্গে নিয়ে দলকে খেলায় ফেরাতে চেষ্টা করে যান অধিনায়ক ব্রান্ডন টেইলর। এই জুটিতে ৪৭ রান যোগ করতেই সাকিব আল হাসানের স্পিনে বোল্ড হয়ে ফেরেন চাকাভা। দলীয় ৮০ রানে ৩২ বলে ২৬ রান করে ফেরেন চাকাভা।

এরপর ৩১ রানের ব্যবধানে দলীয় ৪৬ রানে হিটআউট হয়ে ফেরেন টেইলর। ৫৯ বলে ৩৪ রান করে সাকিবের দ্বিতীয় শিকার হন ডিওন মাইয়ার্স।

১৪৬ রানে প্রথম সারির ৫ ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর সিকান্দার রাজাকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন ওয়েসলি মাধেভেরে। ষষ্ঠ উইকেটে তারা গড়েন ৬৩ রানের ‍জুটি।

এরপর মাত্র ২০ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। শরিফুল ইসলামের বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে তামিম ইকবালের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফেরেন জিম্বাবুয়ের তারকা ব্যাটসম্যান ওয়েসলি মাধেভেরে। তার ব্যাটে ভর করেই চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ার স্বপ্ন দেখেছিল স্বাগতিকরা।

শরিফুলের বলে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের অষ্টম ম্যাচে তৃতীয় ফিফটি তুলে নেন মাধেভেরে। ৬৩ বলে ৫টি চার ও এক ছক্কার সাহায্যে করেন ৫৬ রান।

৭ বলে ৮ রান করে শরিফুলের তৃতীয় শিকার লুক জঙ্গুয়া। রানের খাতা খোলার আগেই শরিফুলের চতুর্থ শিকার ব্লেসিং মুজারাবানি। রিচার্ড এনগারাভাকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংসের শেষ বল পর্যন্ত খেলে যান টেন্ডাই চাতারা। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৪০ রান করে জিম্বাবুয়ে।

এমআই/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...