chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

মহানগর সড়ক পরিবহনের ২৫০ সদস্যের মাঝে ত্রাণ বিতরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: চট্টগ্রাম মহানগর সড়ক পরিবহন লীগের ২৫০ সদস্যের মাঝে প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত উপহার সামগ্রী (ত্রাণ) বিতরণ করেছে জেলা প্রশাসন।

সোমবার (১২ জুলাই) বিকেল ৪টায় এম.এ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন জিমনেসিয়াম হলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এসব উপহার সামগ্রী বিতরণ করেন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

প্রতি প্যাকেট উপহার সামগ্রীর মধ্যে ছিল ৭ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি লবণ, ২ লিটার সয়াবিন তেল ও ১টি সাবান।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ নাজমুল আহসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উপহার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) মোছাঃ সুমনী আক্তার, এনডিসি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ রানা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নুরজাহান আক্তার সাথী, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রতীক দত্ত, জেলা নাজির মোঃ জামাল উদ্দিন, চট্টগ্রাম মহানগর সড়ক পরিবহন শ্রমিক লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মিনহাজ ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ কালিম শেখ প্রমুখ।

স্বেচ্ছাসেবক টিম সিপিপি, সাস ও পূর্বাশার আলো ত্রাণ বিতরণ কাজে সহযোগিতা করেন।

ত্রাণ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনার কারণে যে কয়েকটি সেক্টর ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে তন্মধ্যে মটর পরিবহন একটি। এ সময়ে একদিকে জীবন বাঁচানো, অন্যদিকে জীবিকা ঠিক রাখা অত্যন্ত কঠিন হয়ে উঠেছে।

‘সারাবিশ্ব খুব খারাপ সময় অতিক্রম করছে। জীবদ্দশায় অতীতে কেউ এ রকম কষ্টে পড়েনি। শিশু ও শিক্ষার্থীরা পর্যন্ত ঘরবন্দি হয়ে পড়েছে। করোনাভাইরাস এমন একটি শত্রু যার বিরুদ্ধে পৃথিবীর ৭ শ কোটি মানুষ লড়েও পারছে না।’

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যখন মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হচ্ছে ঠিক তখনই দেশে করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এরপরেও প্রবৃদ্ধি কমেনি, সরকারের উন্নয়ন থেমে থাকেনি।

মিজানুর রহমান বলেন, করোনা প্রতিরোধে মন্ত্রিপরিষদ ঘোষিত কঠোর লকডাউন চলাকালীন একেবারে কর্মহীন হয়ে পড়া বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজনদেরকে ত্রাণের আওতায় আনা হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন রাত-দিন পরিশ্রম করে সমাজের দুস্থ, হতদরিদ্র ও অসচ্ছল মানুষের হাতে সরকার প্রদত্ত ত্রাণ ও নগদ অর্থ সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছেন।

‘নিজস্ব ব্যবস্থাপনায়ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের মাঝে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্তদের মধ্যে যারা প্রকাশ্যে সাহায্য নিতে সংকোচবোধ করছে বা সাহায্য চেয়ে সরকারি ৩৩৩ নম্বরে ফোন ও আমাদের কাছে এসএমএস করছেন প্রত্যেক রাতে তাদের বাসা-বাড়িতে গিয়ে গিয়ে উপহার সামগ্রী পৌঁছে দেয়া হচ্ছে।

তিনি চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনকে ধন্যবাদ জানিয়ে যারা সরকারের সমালোচনা করে তাদেরকে এ সময়ে অসচ্ছল ও হতদরিদ্র মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তায় এগিয়ে আসার আহবান জানান।

পাশাপাশি করোনা মোকাবেলায় সচেতনতা, শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখা ও মাস্ক পরিধানসহ শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়েও গুরুত্বারোপ করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মিজানুর রহমান।

এমআই/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...