chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির আর্থিক অনিয়ম তদন্তে দুদক!

অনুসন্ধান শুরু করেছে দুদকের মানি লন্ডারিং ইউনিটের টিম

ডেস্ক নিউজ : ডিজিটাল ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির বিরুদ্ধে বিভিন্ন আর্থিক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। গ্রাহকের শত শত কোটি নিয়ে কি করছে ইভ্যালি,এমন অনেক প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে নানা মনে।

আর এমন সব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক। তাছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রণালয় এরই মধ্যে আলোচিত ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, দুদক, ভোক্তা অধিকার ‍ও প্রতিযোগিতা কমিশনে চিঠি দিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গ্রাহকের অর্থ উদ্ধারে কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে সরকারকে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুদকের মানি লন্ডারিং ইউনিটের দুই সদস্যের একটি টিমকে অনুসন্ধানের দায়িত্ব দিয়েছে কমিশন।

দুদকে আসা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১৪ মার্চ তারিখে ইভ্যালি ডট কম এর মোট সম্পদ ৯১ কোটি ৬৯ লাখ টাকা এবং মোট দায় ৪শ ৭ কোটি ১৮ লাখ টাকা। গ্রাহকের নিকট থেকে অগ্রিম হিসেবে গৃহীত ২শ ১৩ কোটি ৯৪ লাখ ৬ হাজার ৫শ ৬০ টাকা এবং মার্চেন্টের নিকট থেকে ১শ ৮৯ কোটি ৮৫ লাখ ৯৫ লাখ ৯৫ হাজার ৩শ ৫৪ টাকার মালামাল গ্রহণের পর স্বাভাবিক নিয়মে প্রতিষ্ঠানটির নিকট ৪শ ৩ কোটি ৮০ লাখ ১ হাজার ৯শ ১৪ টাকার চলতি সম্পদ থাকার কথা থাকলেও প্রতিষ্ঠানটির নিকট চলতি সম্পদ রয়েছে মাত্র ৬৫ কোটি ১৭ লাখ ৮৩ হাজার ৭শ ৩৬ টাকা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদনে আরও প্রতীয়মান হয় যে, ইভ্যালি ডট কম এর চলতি সম্পদ দিয়ে মাত্র ১৬ দশমিক ১৪ শতাংশ গ্রাহককে পণ্য সরবরাহ করতে পারবে বা অর্থ ফেরত দিতে পারবে। বাকি গ্রাহক এবং মার্চেন্ট এর পাওনা পরিশোধ করা উক্ত কোম্পানির পক্ষে সম্ভবপর নয়।

পণ্য কিনলেই বিশাল মূল্যছাড়। কখনো কখনো পণ্যের দামের চেয়েও বেশি মূল্যছাড় দিতে দেখা যায় আলোচিত-সমালোচিত ইকমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকায় দুদক অনুসন্ধান শুরু করেছে বলে সাফ জানিয়ে দিলেন দুদক চেয়ারম্যান মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ।

কনজুমার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ক্যাব-সভাপতি ও দুদকের সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম রহমান বলছেন, তদন্তে গ্রাহকের স্বার্থ দেখতে হবে সবার আগে। নতুন ই কমার্স নীতিমালা অনুযায়ী গ্রাহকের টাকা বুঝে পাওয়ার পাঁচ দিনের মধ্যে পৌছে দিতে হবে কাঙ্খিত পণ্য।

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...