chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

চান্দগাঁওতে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

ডেস্ক নিউজ: চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানা এলাকায় পারিবারিক ঝগড়ার রেশ ধরে স্ত্রীকে হত্যার পর নিহতের স্বামী এলাকায় প্রচার করছিলেন তার স্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছে।

তবে তার এ কাল্পনিক কাহিনী বিশ্বাস করেননি এলাকাবাসী। খবর দেন থানায়। চান্দগাঁও থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে এসে লাশটি উদ্ধারের পর কৌশলে জিজ্ঞাসাবাদের নাম করে স্বামীকে আটক করে।

পুলিশ জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে চান্দগাঁও আবাসিক সংলগ্ন জমির কলোনির বাসা থেকে মর্জিনা বেগম (৪০) নামে এক মহিলার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। হত্যার অভিযোগে স্বামী রফিকুল ইসলামকে (৪৫) গ্রেফতার করা হয়।

তাছাড়া এ ঘটনায় নিহতের ভাই রাসেল বাদী হয়ে রফিকুলের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেছেন বলে জানান চান্দগাঁও থানার ওসি মো. মোস্তফিজুর রহমান।

লাশের শরীরে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে জানিয়ে স্থানীয়দের বরাতে ওসি বলেন, গ্রেফতার রফিক নিহত মহিলার স্বামী। পেশায় সিএনজি অটোরিকশাচালক হলেও বেশ কিছুদিন ধরে বেকার। অন্যদিকে মর্জিনা স্থানীয় ম্যাপ-সু ফ্যাক্টরীতে চাকুরি করেন। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে। ছেলে একটি গ্যারেজে দাড়োয়ানের চাকরি করে।

বেশ কিছুদিন ধরে সাংসারিক আর্থিক অনটনের প্রেক্ষিতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথাকাটাকাটি ও ঝগড়াঝাটি শুরু হয়। গত ৭ জুলাই দিবাগত রাতেও দুজনের মধ্যে ঝগড়াঝাটির এক পর্যায়ে রফিক তার স্ত্রীকে হত্যা করে।

হত্যার পরদিন সকালে হত্যার ঘটনাকে ইচ্ছাকৃতভাবে ধামাচাপা দেওয়ার উদ্দেশ্যে স্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরন করেছে বলে প্রচার করছিল। এলাকাবাসী ঘটনাটি থানা পুলিশকে অবহিত করলে ঘটনাস্থল থেকে মর্জিনার মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে জানিয়ে ওসি মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে। এদিকে নিহতের ভাই রাসেলের দায়ের করা হত্যা মামলায় স্বামী রফিককে গ্রেফতার করা হয়েছে জানান ওসি।

নচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...