chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

আজ শপথ নিতে যাচ্ছেন বাইডেন

ডেস্ক নিউজ: আজ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট জোসেফ আর বাইডেন। সেই সাথে প্রথম নারী ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেবেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত কমলা হ্যারিস।

যুক্তরাষ্ট্রের রীতি অনুযায়ী ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্ট লেডি হোয়াইট হাউসে তাঁদের উত্তরসূরিদের স্বাগত জানান। কিন্তু জো বাইডেন ও জিল বাইডেন যখন হোয়াইট হাউসে পা রাখবেন, তখন ওয়াশিংটন শহরেই থাকবেন না ট্রাম্প ও মেলানিয়া। গার্ডিয়ানের খবর অনুযায়ী, আজ কাকডাকা ভোরেই হোয়াইট হাউস ছাড়ার কথা তাঁদের। সকাল ৮টায় মেরিল্যান্ড বিমানঘাঁটিতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শেষ সামরিক কুচকাওয়াজে অংশ নেবেন ট্রাম্প। এরপর সেখান থেকে যাবেন ফ্লোরিডায়, যেখানে আগেই নিজের সব আসবাব পাঠিয়ে দিয়েছেন তিনি। স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় যখন বাইডেন শপথ নেবেন, তখন ফ্লোরিডায় অবস্থান করবেন ট্রাম্প। বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে না থাকার কথা আগেই নিশ্চিত করেছেন তিনি। জো বাইডেন ও জিল বাইডেনকে হোয়াইট হাউসে বরণ করে নেবেন প্রধান আপ্যায়নকারী টিমোথি হারলেথ। ট্রাম্পই এই হারলেথকে নিয়োগ দিয়েছিলেন, যিনি একসময় ট্রাম্প ইন্টারন্যাশনাল হোটেলে চাকরি করতেন।

৬ জানুয়ারি ট্রাম্প সমর্থকদের হামলার কারণে ক্যাপিটল হিলের নিরাপত্তা কয়েক গুণ বাড়ানো হয়েছে। ওয়াশিংটনে মোতায়েন করা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ডের প্রায় ২৫ হাজার সদস্য। এফবিআইয়ের আশঙ্কা, ট্রাম্পপন্থীরা আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করতে পারে। এমনকি নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কোনো কর্মীও হুমকি হয়ে উঠতে পারেন বলে সম্প্রতি আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন আর্মি সেক্রেটারি রায়ান ম্যাককার্থি। যদিও তেমন কোনো আশঙ্কা নেই বলে গতকাল আশ্বস্ত করেছেন দেশটির অস্থায়ী প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস্টোফার মিলার। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘ক্যাপিটলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ২৫ হাজারের বেশি ন্যাশনাল গার্ড সেনা মোতায়েন করা হয়েছে এবং তাঁদের অতীত ঘেঁটে দেখা হচ্ছে। যদিও অভ্যন্তরীণ হুমকির কোনো গোয়েন্দা তথ্য আমাদের কাছে নেই।’
বিকেলে শপথ অনুষ্ঠানের পর আরলিংটন ন্যাশনাল সিমেট্রিতে আরেকটি অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন বাইডেন। সেখানে সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন, জর্জ ডাব্লিউ বুশ ও বারাক ওবামাও উপস্থিত থাকবেন। এই অনুষ্ঠান যখন শেষ হবে, ততক্ষণে বাইডেন ও জিলকে বরণ করার প্রস্তুতি সম্পন্ন করে ফেলবে হোয়াইট হাউস।

সিএনএনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, আজ সকালের মধ্যেই ট্রাম্প প্রশাসনের সবাই হোয়াইট হাউস ছাড়বেন। এরপর পুরো এলাকায় শুরু হবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান। এ জন্য হোয়াইট হাউসের নিয়মিত পরিচ্ছন্নতাকর্মীর পাশাপাশি বাইরে থেকেও অনেক কর্মী ভাড়া করা হয়েছে। হোয়াইট হাউসের গালিচা থেকে শুরু করে জানালার পর্দা—সবই পাল্টানো হবে বিকেলের মধ্যে।
সূত্র : সিএনএন, এএফপি, গার্ডিয়ান।

নচ/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...