chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

ফেসবুক-টুইটারের পর ট্রাম্পের ইউটিউব চ্যানেলও বন্ধ

প্রযুক্তি ডেস্ক: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নিষেধাজ্ঞার খড়গ নেমেছে বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ওপর। সর্বশেষ গুগলের মালিকানাধীন ভিডিও-শেয়ারিং সাইট ইউটিউবও ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে। খবর বিবিসির।

আগামী সাত দিন পর্যন্ত ট্রাম্প ইউটিউবে নতুন ভিডিও আপলোড দিতে পারবেন না অথবা কোনো ভিডিও সরাসরি সম্প্রচারও করতে পারবেন না।

গুগল জানিয়েছে, এই নিষেধাজ্ঞার সময় আরও বাড়ানো হতে পারে। ক্যাপিটল ভবনে সহিংসতায় উসকানি দেয়ার মাধ্যমে ট্রাম্পের চ্যানেল ইউটিউবের নীতি ভঙ্গ করেছে বলে জানায় গুগল।

বুধবার এক বিবৃতিতে গুগল জানায়, ‘যাচাই করার পর এবং সহিংসতার সম্ভাবনার ব্যাপারে উদ্বেগ থাকায় আমাদের নীতি ভঙ্গের কারণে ডোনাল্ড ট্রাম্পের চ্যানেলে নতুন কনটেন্ট আপলোডের সুযোগ আমরা বন্ধ করে দিয়েছি।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘সহিংসতার ব্যাপারে উদ্বেগের কারণে আমরা অনির্দিষ্টভাবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের চ্যানেলে মন্তব্য করার সুযোগও বন্ধ করে দিতে পারি। মন্তব্য সেকশনে নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ থাকায় আমরা এরকম পদক্ষেপ আরও কিছু চ্যানেলের বিরুদ্ধেও নিয়েছি।’

গতকালও ট্রাম্প তার চ্যানেলে বেশ কয়েকটি ভিডিও আপলোড করেছেন যেগুলো এখনো অনলাইনেই রয়েছে। ভিডিওতে ঠিক কী বলার কারণে তার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হল তা গুগল পরিষ্কার করেনি।

গুগল জানায় তাদের তিন ধাপের নীতি ভঙ্গ করলে ট্রাম্পের চ্যানেল স্থায়ীভাবে বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রাম ইতোমধ্যেই ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে। আগামী ২০ জানুয়ারি নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আগ পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এদিকে টুইটার ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট চিরস্থায়ীভাবে বন্ধ করে দিয়েছে।

এমআই/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...