chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

দিনে ১০ লাখ ভ্যাকসিন প্রয়োগ দিবে যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। পরবর্তী কয়েক সপ্তাহে এটি আরো বিপজ্জনক হতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউসি।

তিনি বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথমে ধীর গতিতে করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হলেও খুব শিগগিরই দিনে কমপক্ষে ১০ লাখ ভ্যাকসিন দেয়া হবে।

এই ধীর গতি স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং জনসাধারণকে হতাশ করেছে। টিকা প্রয়োগের ক্যাম্পেইন তিন সপ্তাহ ধরে শুরু হলেও মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত রাজ্যে প্রথম ধাপের ব্যবহারের জন্য সরবরাহ করা টিকার মাত্র এক তৃতীয়াংশ প্রয়োগ করা হয়েছে।

‘যখনই আপনি বড় কোনো কর্মসূচি শুরু করেন না কেন ভুল থাকবেই। আমি মনে করি ভুল সমাধান করা হয়েছে,’ বলেন ফাউসি।

তিনি উল্লেখ করেন যে, টিকা প্রয়োগ খুব দ্রুততার সাথে করা হচ্ছে। প্রতিদিন প্রায় পাঁচ লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হচ্ছে।

এখন ছুটির দিন শেষ হওয়ার পরে, ‘কিছুটা গতি অর্জন করুন, আমি মনে করি আমরা দিনে এক মিলিয়ন বা তারও বেশি ভ্যাকসিন প্রয়োগ করতে পারবো,’ বলেন ফাউসি।

নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ক্ষমতা গ্রহণের ১০০ দিনের মধ্যে ১০০ মিলিয়ন টিকা প্রয়োগের লক্ষ্যকে ‘অত্যন্ত বাস্তববাদী, গুরুত্বপূর্ণ এবং অর্জনযোগ্য’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ফাউসি অনুমান করেছেন যে ‘হার্ড ইমিউনিটি’ অর্জনের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জনসংখ্যার ৭০ শতাংশ থেকে ৮৫ শতাংশের মধ্যে টিকা দেয়া দরকার, যার অর্থ পর্যাপ্ত মানুষ সুরক্ষিত থাকলে ভাইরাসের ছড়িয়ে পড়া কঠিন হয়ে যাবে। ৭০ থেকে ৮৫ শতাংশ মানে প্রায় ২৮০ মিলিয়ন মানুষ।

পরবর্তী শরতের শুরুতেই এই লক্ষ্য অর্জন করতে পারবেন বলে আশাবাদী তিনি।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এ পর্যন্ত দেশটিতে ২ কোটি ১০ লাখ ৪৪ হাজার ২০ জন করোনায় আক্রান্ত এবং ৩ লাখ ৫৭ হাজার ১৫৬ জন মৃত্যুবরণ করেছেন।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় (জেএইচইউ) থেকে পাওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বুধবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি ৬৩ লাখ ৭৯ হাজার ৬৭২ জনে। এছাড়া ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ১৮ লাখ ৬৭ হাজার ৫৮৫ জনে। পাশাপাশি কোভিড-১৯ থেকে বিশ্বব্যাপী সুস্থ হয়েছেন ৪ কোটি ৮৪ লাখ ১৭ হাজার ৭৯৯ জন।

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...