chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

আল্লামা শফীর মৃত্যু : বাবুনগরী দোষী হলে ফাঁসি চান শ্যালক মঈন

নিজস্ব প্রতিবেদক : হেফাজতে ইসলামের প্রয়াত আমির আল্লামা শাহ আহমেদ শফীকে হত্যার মামলা করায় সংগঠনের বর্তমান আমির জুনাইদ বাবুনগরীর অনুসারীরা হুমকি দিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

আজ শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে অভিযোগটি এনেছেন মামলার বাদী আল্লামা শফীর শ্যালক মো. মঈন উদ্দিন। তিনি বলেন, হেফাজত আমির যদি দোষী হন, তাহলে তাকে ফাঁসিতে ঝোলাতে হবে।

মঈনের অভিযোগ, আল্লামা শফীকে কেবল হত্যাই করা হয়নি, তার বড় ছেলেকে জানাজার সময় বলতে বাধ্য করা হয়েছে। এই মৃত্যু স্বাভাবিক ছিল না।

শফীর খাদেম এবং তার এক নাতির লেখা এক পুস্তিকায় অভিযোগ করা হয়েছে, সেদিন শফীকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করা হয়েছে, তার চিকিৎসায় বাধা দেয়া হয়েছে, হাসপাতালে নিতে অ্যাম্বুলেন্স ঢুকতে দেয়া হয়নি, পরে অক্সিজেনের নল ছিড়ে ফেলা হয়েছে। আর ১৭ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসকরা বলেছেন, দেরি হয়ে গেছে। পরদিন ঢাকার একটি হাসপাতালে আনার পর তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

গত ১৭ ডিসেম্বর ৩৬ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা হয় চট্টগ্রামের একটি আদালতে, যার আসামিদের সিংহভাগ হেফাজতের বর্তমান কমিটির নেতা।

চট্টগ্রামের বিচারিক হাকিম শিবলু কুমার দে’র আদালতে মামলাটি করেন শফীর শ্যালক মোহাম্মদ মাঈন উদ্দীন। আসামিদের মধ্যে আছেন হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক, নাছির উদ্দিন মুনির, মীর ইদ্রিস নদভী, সহকারী যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উল্লাহ, আহসান উল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া নোমান ফয়েজী।

মামলায় অভিযোগ আনা হয়েছে, আল্লামা শফীকে গৃহবন্দি করে নির্যাতনের মাধ্যমে শাহাদাত বরণ করতে বাধ্য করা হয়েছে। মৃত্যুর কয়েক দিন আগে থেকে খাবার, ওষুধ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। তাকে আসামিরা পরস্পর যোগসাজশ করে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে।

বাদীর আইনজীবী মোহাম্মদ আবু হানিফ জানান, আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছে।

গত ২৩ ডিসেম্বর জুনাইদ বাবুনগরী অভিযুক্তদের নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দাবি করেন, আল্লামা শফীর মৃত্যু ছিল স্বাভাবিক। মামলা করার ছয়দিন পর গত ২৩ ডিসেম্বর সংবাদ সম্মেলনে এসে বাবুনগরী বলেন, ‘নির্যাতনের শিকার হয়ে মৃত্যুর অভিযোগ এনে যে মামলা করা হয়েছে তা ভিত্তিহীন। রাজনৈতিক ফায়দা লুটার জন্য ষড়যন্ত্রের অংশ এ মামলা।’
এর তিন দিন পর আজ সংবাদ সম্মেলনে আসেন শ্যালক মঈন উদ্দিন।

এসএএস/এএমএস/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...