বিগত ৫০ বছরেও স্বাধীনতাকে মেনে নেয়নি মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতাকারীরা-অনুপম সেন

ডেস্ক নিউজ : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা ও একুশে পদকপ্রাপ্ত সমাজ বিজ্ঞানী ডঃ অনুপম সেন বলেছেন, যারা মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীতা করেছিল তারা স্বাধীনতাকে মেনে নেয়নি বিগত পঞ্চাশ বছরেও।

তারাই বঙ্গবন্ধুর কালজয়ী নেতৃত্বে বাঙালির জাতীয় জীবনের সর্বশ্রেষ্ঠ অর্জন স্বাধীনতাকে বিনষ্ট করার অপচেষ্টা চালিয়ে আসছে অব্যাহতভাবে।

“মুক্তিযুদ্ধের চেতনার প্রদীপ্ত শিখায় দূরীভূত হোক সকল অন্ধকার ”এ’প্রত্যয়ে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর সেক্টর কমান্ডার্স ফোরাম আয়োজিত স্মরণানুষ্ঠান ও সুর্যাস্তের পর প্রদীপ প্রজ্জ্বলন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্যে আঘাত করে তারা চরম ধৃষ্টতা দেখিয়েছে। এদের বিরুদ্ধে একাত্তরের মতো মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি আইন করে স্বাধীনতা বিরোধীদের সকল কর্মকান্ড নিষিদ্ধের দাবী জানিয়ে বলেন, মুক্তিযুদ্ধে অর্জিত বাংলাদেশ ও বঙ্গবন্ধুর প্রশ্নে কোনো আপস হতে পারেনা।

আজ রবিবার চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সংগঠনের জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম মন্টুর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক বেদারুল আলম চৌধুরী বেদার।

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সরফরাজ খান চৌধুরী বাবুল, নারী নেত্রী দিলোয়ারা ইউসুফ, মুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. জাহিদ হোসেন শরীফ, মুক্তিযোদ্ধা ফজল আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র বিশ্বাস, ফোরকান উদ্দিন আহমেদ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যায়ের শিক্ষক হিমু হামিদ, ড. ওমর ফারুক রাসেল ও মোহাম্মদ আলী প্রমুখ।

এসময় মুক্তিযোদ্ধা গৌরীশংকর চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়া, মুক্তিযোদ্ধা লেয়াকত হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আমীন, প্রকৌশলী রথিন সেন, এড.ইফতেখার রাসেল, সাহেদ মুরাদ শাকু, এডঃ সাইফুন্নাহার খুশী, জসীম উদ্দিন, ইঞ্জিনিয়ার পলাশ বড়ুয়া, মনোয়ার জাহান মনি, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোক্তার বেগম মুক্তা, হাজী সেলিম রহমান, এডঃ জাহাঙ্গীর আলম, এডঃ কামরুল আজম, নুরুল হুদা চৌধুরী, নাজিম উদ্দিন,পংকজ রায়, মঈনুল আলম খান, মোজাম্মেল মানিক, নবী হোসেন সালাউদ্দিন, সরোয়ার আলম মনি, এডঃ রিক্তা বড়ুয়া, চট্টগ্রাম নারী শ্রমিক লীগ সভাপতি নাসরীন আকতার, পারুল আকতার, এড. সৈকত দাশগুপ্ত, জাহাঙ্গীর সুমন, সাধন দাশ, সেলিম হোসেন, মুহাম্মদ আইয়ুব, কামাল উদ্দিন, দীপন দাশ, মোরশেদ আহমেদ, রাজীব চন্দ, আবু তালেব সানী, নাসির পান্না, ইব্রাহিম চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার এয়াকুব মুন্না, মো ফয়সাল, এমএ হাসান, সোহেল ইকবাল, ইসমে আজিম আসিফ, ইমরান মুন্না, এস এম রাফি, আমানউল্লাহ মানিক, কোহিনুর আকতার কনা, সাবিহা সুলতানা, মফিজুর রহমান, প্রবীর দাশ সুমন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

চখ/আর এস

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...