করোনায় স্বল্প আয়ের শ্রমিকরাই সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ, বেশি সংকটে নারীরা

ডেস্ক নিউজ : করোনা মহামারীতে বিশ্বের মোট জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশি মানুষ এখন কষ্টে জীবন-যাপন করছে। সবচেয়ে বেশি কষ্টে আছে শ্রমজীবি মানুষরা।

ভাইরাসের প্রভাবে বিশ্বব্যাপী মজুরি কমেছে শ্রমিকের। তার মধ্যেও বিভিন্ন ব্যক্তি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানের স্বল্প মেয়াদি চুক্তিভিত্তিক শ্রমিকরা অধিকাংশই এখন চাকরি হারিয়ে এখন দিশেহারা।

আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার (আইএলও) এক গবেষণায় বলা হয় যেসব শ্রমিকের মজুরি কম তারা অপেক্ষাকৃত বেশি সংকটে পড়েছে। অন্যদিকে করোনার কারণে পুরুষ কর্মীর চেয়ে বেশি ক্ষতির মুখে পড়েছে নারী শ্রমিক।

২৮ দেশের জোট ইউরোপীয় ইউনিয়নের উপর চালানো জরিপে দেখা যায়, সেখানে চলতি বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন) ভর্তুকি সুবিধা বাদে নারী শ্রমিকরা গড়ে ৮ দশমিক ১ শতাংশ মজুরি হারিয়েছে, যেখানে পুরুষ কর্মী হারিয়েছে ৫ দশমিক ৪ শতাংশ। অন্যদিকে এ অঞ্চলের কম মজুরি পাওয়া শ্রমিকরা হারিয়েছে ১৭ দশমিক ৩ শতাংশ মজুরি।

বুধবার ( ২ ডিসেম্বর) বিশ্বব্যাপী প্রকাশিত আইএল ‘র প্রতিবেদনে বলা হয়, পরিসংখ্যান প্রকাশকারী দেশগুলোর দুই তৃতীয়াংশ দেশে নিকট ভবিষ্যতে ব্যাপকভাবে মজুরি কমার চাপ তৈরি হতে পারে।

যেসব দেশ করোনার শুরু থেকে কর্মসংস্থান রক্ষায় উদ্যোগী ছিল, সেখানে কর্মহীন হওয়ার চেয়ে প্রাথমিকভাবে মজুরি কমার প্রভাব লক্ষণীয় ছিল।

আইএলওর মহাপরিচালক গাই রাইডার বলেন, অসম প্রবৃদ্ধি করোনা সংকটে দারিদ্র্য এবং সামাজিক ও অর্থনৈতিক অস্থিতিশীলতাকে আরো হুমকিতে ফেলতে পারে, যা ধ্বংসাত্মক পরিণতি ডেকে আনতে পারে। আমাদের করোনা থেকে উত্তরণের কৌশল গণমানুষকেন্দ্রিক হওয়া দরকার।

চখ/আর এস

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...