৫৫ বছরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক : সাফল্য, গৌরব আর ঐতিহ্যের ৫৪ বছর পেরিয়ে আজ ৫৫ বছরে পা দিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি)। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও বিভিন্ন সংগঠন সীমিত পরিসরে আয়োজন করতে যাচ্ছে নানা অনুষ্ঠানমালার।

বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে আজ বুধবার (১৮ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন কর্তৃক সকালে ক্যাম্পাসে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ অর্পণ, কেক কাটা ও উপাচার্যের সম্মেলন কক্ষে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা। এছাড়া বিকালে শহরের চারুকলা ইনিস্টিউটে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপন করবে চবি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন।

সংগৃহীত ছবি

১৯৬৬ সালের ১৮ নভেম্বর চারটি বিভাগ নিয়ে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের জঙ্গল পশ্চিম-পট্টি মৌজার ২১শ একর জায়গা জুড়ে পাহাড়ের কোলঘেষে যাত্রা শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়টি। শিক্ষার্থী সংখ্যার দিক দিয়ে এটি তৃতীয় বৃহত্তম এবং আয়তনে দেশের সবচেয়ে বড় বিশ্ববিদ্যালয় এটি।

 

সংগৃহীত ছবি

বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে রয়েছে ৪৮টি বিভাগ ও ৭টি ইনস্টিটিউট। যাতে রয়েছে ২৩ হাজার ৫৫৪ জন শিক্ষার্থী ও ৯২৫ জন শিক্ষক। আরও রয়েছে ৪ লক্ষাধিক বইয়ের বিশাল সংগ্রহশালা নিয়ে প্রতিষ্ঠিত সমৃদ্ধ লাইব্রেরি। যেখানে আছে দেশ-বিদেশের দুষ্প্রাপ্য ও দুর্লভ অনেক বই, সাময়িকী, পত্র-পত্রিকা, জার্নাল ও পাণ্ডুলিপি। বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে তিনটি ভিন্নধর্মী নিজস্ব জাদুঘর। যাতে দেখা মিলে দুর্লভ অনেক সংগ্রহের। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে শিক্ষার্থী পরিবহণের জন্য নিজস্ব শাটল ট্রেন। যা বিশ্বের দ্বিতীয় কোন বিশ্ববিদ্যালয়ের নেই। এছাড়া রয়েছে দৃষ্টিনন্দন রাজনীতি, বিনোদন, সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের আঁতুরঘর খ্যাত ঝুপড়ি, ঝুলন্ত সেতু, পাহাড়, ঝর্ণা, লেক, শতাধিক প্রজাতির পাখি, বানর, মায়া হরিণ, শূকর, সজারুসহ বিভিন্ন প্রজাতির বন্য প্রাণি ও আড়াই শ’ প্রজাতির বৃক্ষের সংগ্রহ।

সংগৃহীত ছবি

৫৪ বছরের এই পথচলায় চবি জন্ম দিয়েছে অসংখ্য রথী-মহারথীর। যাদের মধ্যে রয়েছে নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস, ভৌত বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. জামাল নজরুল ইসলাম, সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেন, সৈয়দ আলী আহসান, মুর্তজা বশীর, ঢালী আল মামুন, অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান, অধ্যাপক আবুল ফজল, আলাউদ্দিন আল আজাদ, সাবেক ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান প্রমুখ। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে আছেন বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ফজলে কবির। যিনি এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রয়াত মেয়র আনিসুল হকও ছিলেন একই বিভাগের শিক্ষার্থী, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ছিলেন রসায়ন বিভাগের ছাত্র।

এসএস/নচ

 

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...