আওয়ামী জনপ্রতিনিধিদের নির্যাতনের টর্চার সেল: ডা. শাহাদাত

চট্টগ্রামে যুবদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, ডিজিটাল বাকশালী আওয়ামী লীগ দু:শাসনে জনজীবন আজ বিপন্ন। আওয়ামী জনপ্রতিনিধিদের বাসা-বাড়ী-অফিস নির্যাতনের টর্চার সেল। বিনা ভোটের সরকারের আসল ফ্যাসিবাদী চরিত্র আজ দেশবাসীর কাছে দৃশ্যমান। চারিদিকে শুধু, ধর্ষণ, খুন, গুম, লুটপাট ও দখলের হরিলুট ব্রেকিং নিউজ।

আজ (মঙ্গলবার) ২৭ অক্টোবর দুপুরে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের উদ্যোগে নগরীর ষোলশহরস্থ ঐতিহাসিক বিল্পব উদ্যানে র‌্যালী ও পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, একনায়কতন্ত্রের হাত থেকে দেশবাসী ও দেশের স্বাধীনতা এবং সার্বভৌমত্ব রক্ষার একমাত্র হাতিয়ার জাতীয়তাবাদী শক্তি।

মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীর উত্তম অবহেলিত যুবসমাজকে উৎপাদনমূখী রাজনীতিতে সক্রিয় করতে ও ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব সৃষ্টি করতে আজ থেকে ৪২ বছর আগে নিজ হাতে গঠন করেছিলেন জাতীয়তাবাদী যুবদল। পরবর্তীতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তারুণ্যের অহংকার তারেক রহমানের দিক নির্দেশনায় শহীদ জিয়ার যুবদল আজ দেশের সর্ব বৃহৎ রাজনৈতিক সংগঠনে পরিণত হয়েছে।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, আমার প্রাণের সংগঠন জাতীয়তাবাদী যুবদল। যুবদলের সাংগঠনিক রাজনীতির মাধ্যমেই দীর্ঘ পথ পরিক্রমা অতিক্রম করেই আমি আজ নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক। শহীদ জিয়ার হাতে গড়া যুবদল আজ সুশৃংখল সাংগঠনিক ইউনিট হিসেবে সারাদেশে নিজেদের অবস্থান সুদৃঢ় করেছে। গণতন্ত্র পুন:রুদ্ধার আন্দোলনে চট্টগ্রাম মহানগর যুবদল দিপ্তী ও শাহেদের নেতৃত্বে আরো এগিয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।

জাতীয়তাবাদী যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহসভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সভাপতি মোশাররফ হোসেন দিপ্তীর সভাপতিত্বে ও জাতীয়তাবাদী যুবদলের কেন্দ্রীয় কমিটির চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ সাধারণ সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ শাহেদের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নগর যুবদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি ইকবাল হোসেন, সহ-সভাপতি নুর আহমেদ গুড্ডু, এস এম শাহ আলম রব, ফজলুল হক সুমন, মোহাম্মদ ইলিয়াছ, মো. জাহাঙ্গির আলম, আবদুল করিম, আবদুল গফুর বাবুল, সাহাব উদ্দিন হাসান বাবু, মোহাম্মদ মুছা, মনিরুল হাসান সিদ্দিকী, নাসির উদ্দিন চৌধুরী নাছিম, হাসান মুরাদ, জসিমুল ইসলাম কিশোর, জাহেদুল হাসান বাবু, মোহাম্মদ আলী সাকি, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক মোশারফ হোসাইন, যুগ্ম সম্পাদক সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন, মো. হুমায়ুন কবীর, মো. তাজুল ইসলাম তাজু, আবদুল হামিদ পিন্টু, মো. তৌহিদুল ইসলাম রাসেল, শাহীন পাটোয়ারী, সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদুল হক বাদশা, হেলাল হোসেন, গুলজার হোসেন, রাজন খান, ওমর ফারুক, সহ-সাধারণ সম্পাদক আসাদুর রহমান টিপু, ওসমান গণি সিকদার, শাহজাহান পলাশ, আহাদ আলী সায়েম, জাফর আহমদ খোকন, মোহাম্মদ ইয়াসিন, সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য জিল্লুর রহমান জুয়েল, মোহাম্মদ সাগীর, আজিজুল হক মাসুম, আলাউদ্দিন, মোহাম্মদ আলী, মহিউদ্দিন মুকুল, এনামুল হক এনাম, এস এম বখতেয়ার উদ্দিন, ইফতেখার শাহরিয়ার আজম, মো. ইকবালসহ প্রমুখ।

এসএএস/এএমএস 

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...