১৭ লাখ টাকা ভ্যাট ফাঁকির দায়ে চট্টগ্রামের এ্যামব্রোশিয়া হোটেলের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ এলাকার এ্যামব্রোশিয়া হোটেল কর্তৃপক্ষ প্রকৃত বিক্রয় তথ্য গোপন করে ১৭ লাখ টাকার ভ্যাট ফাঁকি দিয়েছে। ভ্যাট গোয়েন্দার অভিযানে এই তথ্য উদঘাটিত হয়। 

আজ সোমবার এ্যামব্রোশিয়ার বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির কারণে মামলা দায়ের করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা। সংস্থার উপপরিচালক তানভীর আহমেদ অভিযান পরিচালনা করেন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভ্যাট গোয়েন্দার দল গত ৭ সেপ্টেম্বর এমব্রোশিয়া রেস্টুরেন্টে আকস্মিক পরিদর্শন করে।

এসময় তারা কতিপয় বাণিজ্যিক দলিল জব্দ করেন। এতে দেখা যায় মাসিক রিটার্নে তাদের প্রদর্শিত বিক্রয়ের সাথে ব্যাপক গরমিল রয়েছে।

অনুসন্ধান অনুসারে ২০১৮ সালের জুলাই ২০২০ সালের জুলাই পর্যন্ত সময়ে রেস্টুরেন্টের প্রকৃত মোট বিক্রির পরিমাণ ছিল ৩ কোটি ৬৯ লাখ টাকা। এই মূল্যের উপর ভ্যাট আরোপযোগ্য হয় ৫৫ লাখ ৩৩ হাজার টাকা।

কিন্তু এ্যামব্রোশিয়া কর্তৃপক্ষ মাসিক রিটার্নের মাধ্যমে ভ্যাট দিয়েছে মাত্র ৪১ লাখ ৮৬ হাজার টাকা। পরিহারকৃত ভ্যাটের পরিমাণ ১৩ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা।

সময়মতো ভ্যাট পরিশোধ না করায় আইন অনুসারে ২% হারে সুদ প্রযোজ্য হবে ১৭ লাখ ২৪ হাজার টাকা।

উল্লেখ্য করোনাকালীন মার্চ-জুন ২০২০ চার মাস রেস্টুরেন্টটি বন্ধ ছিল এবং তাদের জিরো রিটার্ন বিবেচনায় আনা হয়েছে। ভ্যাট গোয়েন্দা দল কর্তৃক উদঘাটিত এই ফাঁকি করোনার পূর্ব সময়ের।

এমএইচআই/এএমএস

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...