আল্লামা শফীর মৃত্যুর জন্য কাউকে দায়ি করা নির্জলা মিথ্যাচার: আসাতাযায়ে কেরাম

নিজস্ব প্রতিবেদক : হাটহাজারী মাদ্রাসার শীর্ষ আসাতাযায়ে কেরাম (শিক্ষকমণ্ডলী) এক বিবৃতিতে বলেছেন, হযরত আল্লামা শাহ আহমদ শফি স্বজ্ঞানে এবং স্বেচ্ছায় হাটহাজারী দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার দায়িত্ব শুরা কমিটির হাতে সোপর্দ করে গেছেন। তাঁর ইন্তেকাল স্বাভাবিকভাবে হয়েছে। এরপরও কোনো ব্যক্তি বা গোষ্ঠী হীনস্বার্থ উদ্ধারে হযরতের লাশ নিয়ে রাজনীতি করা এবং কওমী অঙ্গনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা ঠিক হবে না।

২৮ সেপ্টেম্বর সোমবার গণমাধ্যমে পাঠানো মাদ্রাসার শীর্ষ আসাতাযায়ে কেরাম (শিক্ষকমণ্ডলী) স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ কথা জানানো হয়।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, মাদ্রাসায় সাম্প্রতিক ছাত্র আন্দোলনে প্রতিষ্ঠানের কোনো উস্তাদ এবং বাইরের কোনো সংগঠন ও ব্যক্তির উস্কানি বা সম্পৃক্ততা ছিলো না। হযরতের মৃত্যুর জন্য কাউকে দায়ী করা নির্জলা মিথ্যাচার বৈ কিছুই নয়।

মাদ্রাসার বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত ও সুশৃঙ্খল দাবি করে বিবৃতিতে বলা হয়, মাদ্রাসার অবস্থা খুবই ভালো। নিয়মিত ক্লাশ চলছে। আল-হাইআতুল উলয়া লিলজামিআতিল কওমীয়ার পরীক্ষাও সুন্দরভাবে চলছে। কোনো সমস্যা নেই। মাদ্রাসার শিক্ষকবৃন্দ, ছাত্রগণ ও এলাকাবাসী খুবই সন্তুষ্ট।

আসাতাযায়ে কেরাম আরো বলেন, দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসা হযরত আল্লামা শাহ আহমদ শফিসহ সকল মুরুব্বিয়ানে কেরামের উসূল অনুযায়ী চলছে এবং চলবে।

বিবৃতিদাতাগণ হলেন, মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির প্রধান আল্লামা মুফতী আজম আব্দুস সালাম চাটগামী, সদস্য মজলিসে ইলমী আল্লামা মুফতী নূর আহমদ, সদস্য পরিচালনা কমিটি আল্লামা শেখ আহমদ, শায়খুল হাদীস ও শিক্ষা সচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী, সহকারী শিক্ষা সচিব আল্লামা হাফেয শোয়াইব, সদস্য পরিচালনা কমিটি হযরত মাওলানা ইয়াহইয়া, সদস্য মজলিসে ইলমী হযরত মাওলানা ওমর মেখলী, প্রধান নাজেমে দারুল ইকামা হযরত মাওলানা মুফতী জসীম উদ্দীন, সদস্য দারুল ইকামা হযরত মাওলানা কবীর আহমদ, হযরত মাওলানা আশরাফ আলী নেজামপুরী, সিনিয়র শিক্ষক হযরত মাওলানা হাফেয আহমদ দিদার কাসেমী, সদস্য দারুল ইকামা হযরত মাওলানা ফোরকান আহমদ প্রমুখ ।

এএমএস/

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...