কপালের কালো দাগ দূর করুন এই উপায়

লাইফস্টাইল ডেস্ক : কোমল, উজ্জ্বল ও দাগহীন ত্বক কে না চাই। উজ্জ্বল জন্য করে থাকেন সাধ্যমতো সব কিছুই। ঘরোয়া উপাদান থেকে শুরু করে কেমিকেল পণ্য সব কিছুই ব্যবহার করেছেন। তারপরও আশানুরূপ ফল পাচ্ছেন না।

বিশেষ করে কপাল এবং থুতনি বা চিবুকের দাগ দূর করা খুবই কষ্টের ব্যাপার। সহজে এখানকার কালোভাব দূর করা যায় না। এতে মুখের সৌন্দর্যও নষ্ট হয় অনেকখানি। এক্ষেত্রে আপনি কিছু ঘরোয়া পদ্ধতির সাহায্য নিতে পারেন। তাহলে চলুন জেনে নিন কীভাবে কপালের এবং থুতনির কালোভাব দূর করতে পারবেন-

বাদাম তেল দিয়ে কপালের কালোভাব দূর করা যেতে পারে। একটি পাত্রে বাদামের তেল নিয়ে তাতে মধু এবং গুঁড়া দুধ মিশিয়ে নিন। এরপর এটি কপালে এবং থুতনিতে লাগান। মিশ্রণটি শুকিয়ে গেলে, ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। কপালের কালোভাব দূর করতে এই মিশ্রণটি প্রতিদিন প্রয়োগ করুন।

  • কাঁচা দুধ ও হলুদ

কাঁচা দুধে হলুদ মিশিয়ে লাগালেও কপালের কালোভাব দূর হবে। দুধে হলুদ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই পেস্টটি কপালে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এর পরে আলতোভাবে কপালে এবং থুতনিতে ম্যাসাজ করে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে দু’বার হলুদ ও দুধ ব্যবহারের ফলে এই কালোভাব দূর হবে।

  • চন্দন পাউডার

কপালের কালোভাব দূর করতে চন্দন পাউডারও ব্যবহার করতে পারেন। আধা চামচ চন্দন পাউডার, এক চামচ ডাবের পানি এবং সামান্য বাদাম তেল নিয়ে ভালোভাবে মেশান। এরপর এই পেস্টটি কপালেএবং থুতনিতে লাগান। ২০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই পেস্টটি প্রতিদিন প্রয়োগ করলে কপালের এবং থুতনির কালোভাব দূর হবে।

 

Loading...