এসআর গ্রুপের রেস্টুরেন্টে ২৬ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকার ভ্যাট ফাঁকি

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর নিকুঞ্জ এলাকায় এসআর গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে তাদের মালিকানাধীন দু’টি রেস্টুরেন্টে প্রায় ২০০ কোটি টাকার বিক্রয় গোপনের তথ্য উদঘাটন করেছে ভ্যাট গোয়েন্দা। তথ্য গোপনের মাধ্যমে সরকারকে ২৬ কোটি ৪৩ লক্ষ টাকার ভ্যাট ফাঁকি দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

ভ্যাট গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভ্যাট গোয়েন্দার দল রাজধানীর নিকুঞ্জ এলাকার এসআর গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে বাণিজ্যিক হিসাবপত্র জব্দ করে। জব্দকৃত কাগজপত্র যাচাই করে দেখা যায়, উত্তরবঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি দু’টি হাইওয়ে রেস্টুরেন্ট পরিচালনা করছে। এগুলো হলো ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে বগুড়ার শেরপুরে ফুড ভিলেজ লিমিটেড। অন্যটি হলো, একই মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের হাটিকুমরুলে ফুডভিলেজ প্লাস।

সিরাজগন্জ ভ্যাট সার্কেল থেকে প্রাপ্ত তথ্যে দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানটি ফেব্রুয়ারি ২০১৭ থেকে জুলাই ২০২০ পর্যন্ত ৩ বছর ৬ মাসে ফুড ভিলেজ প্লাস রেস্টুরেন্টে বিক্রয় প্রদর্শন করেছে ২৩ কোটি ১ লক্ষ টাকা। এর বিপরীতে ভ্যাট পরিশোধ করা হয়েছে ২ কোটি  ৫২ লক্ষ টাকা।

কিন্তু জব্দকৃত কাগজে দেখা যায় প্রকৃত বিক্রয়ের পরিমাণ ১২৩ কোটি  ৩০ লক্ষ টাকা। ফুড ভিলেজ প্লাস এই সময়ে বিক্রয় গোপন করেছে ১০০ কোটি টাকা। এখানে ভ্যাট ফাঁকি হয়েছে ৯ কোটি ৪৪ লক্ষ টাকা। এই ভ্যাট যথাসময়ে পরিশোধ না করায় ভ্যাট আইন অনুযায়ী মাসিক ২% হারে সুদ বর্তায় ৪ কোটি ৭ লক্ষ  টাকা।

অন্যদিকে, একই মালিকানাধীন ফুড ভিলেজ লিমিটেড ফেব্রুয়ারি ২০১৭ থেকে জুন ২০২০ পর্যন্ত ৩ বছর ৫ মাসে মাসিক ভ্যাট রিটার্নে বিক্রয় দেখানো হয়েছে ২৩ কোটি ৮৮ লক্ষ টাকা। এতে ভ্যাট দেওয়া হয়েছে ২ কোটি  ৫১ লক্ষ টাকা।

তবে অভিযানে এই সময়ে ফুড ভিলেজ লিমিটেডের প্রকৃত বিক্রয় ১২২ কোটি ২২ লক্ষ টাকা পাওয়া যায়। এই তথ্য গোপন করায় ফুড ভিলেজ লিমিটেড কর্তৃক ভ্যাট ফাঁকি হয়েছে ৮ কোটি ৯৩ লক্ষ টাকা। এতে সুদ আরোপযোগ্য হয়েছে ৩ কোটি ৯৯ লক্ষ টাকা।

দু’টি রেস্টুরেন্টে প্রকৃত বিক্রয় গোপন করা হয়েছে মোট ১৯৮ কোটি ৬৩ লক্ষ টাকা। ভ্যাট রিটার্নে এসআর গ্রুপ প্রায় ৭২% তথ্য গোপন করে ভ্যাট ফাঁকি দিয়েছে। তথ্য গোপন করায় সরকার এই দুই রেস্টুরেন্ট থেকে ২৬ কোটি  ৪৩ লক্ষ টাকার ভ্যাট থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

অভিযান পরিচালনা করেন সংস্থার উপ পরিচালক নাজমুন্নাহার কায়সার ও ফেরদৌসী মাহবুব।

এমএইচআই/এএমএস

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...