হালিশহরে গণধর্ষণ মামলায় ১ ধর্ষক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ নগরীর হালিশহরে গনধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় অভিযুক্ত ১ ধর্ষককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার (১৪ সেপেটম্বর) সন্ধ্যায় হালিশহর থানাধীন ছোটপুল থেকে তাকে আটক করা হয়।

অভিযুক্ত ওই ধর্ষকের নাম- ইমন (২৭)। সে হালিশহর থানাধীন ছোটপুলের মালেক মাস্টারের বাড়ীর মো.ইদ্রিসের ছেলে বলে জানা গেছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ১১ নভেম্বর রাতে ভুক্তভোগী এক নারী তার স্বামীসহ ছোটপুলের ভাড়া বাসায় অবস্থান করছিলেন। ওই দিন রাত ১২টার দিকে সাজ্জাদ হোসেন ওরফে আবেদ (২৭), আব্দুর নূর হোসেন ওরফে লল (২৮), ইমন (২৭), নূর উদ্দিন (২৭) সহ চারজন ভুক্তভোগী ওই নারীর বাসায় এসে দরজায় কড়া নাড়ে। পরে ভুক্তভোগী নারীর স্বামী দরজা খুলে দিলে তারা বাসায় প্রবেশ করেন।

বাসায় প্রবেশ করে আবেদ ও ইমন তার স্বামীকে বাইরে ঢেকে নেন এবং গলির মুখে আটকে রাখেন। এসময় বাসার ভেতরে নূর উদ্দিন ও আব্দুর নূর হোসেন অবস্থান করছিলেন। এক পর্যায়ে তারা বাসার লাইট বন্ধ করে প্রথমে নূর হোসেন, পরে নূর উদ্দিন ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন।

এরপর বাইরে অবস্থান করা আবেদ ও ইমন পুনরায় ঘরে প্রবেশ করেন। দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রথমে আবেদ ও পরে ইমন ভুক্তভোগীর মুখ চেপে ধরে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন।

পরে এই ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী নগরীর হালিশহর থানায় চারজনকে আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পুলিশ নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ২ জনকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করে। মামলার পর দীর্ঘদিন আরেক আসামি ইমন পলাতক থাকলে পুলিশ তাকেও আটক করতে সক্ষম হয়।

হালিশহর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে চট্টলার খবরকে জানান, ইমন দীর্ঘদিন পলাতক ছিলো। আজগরীর হালিশহরে গনধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় অভিযুক্ত ১ ধর্ষককে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (১৪ সেপেটম্বর) সন্ধ্যায় হালিশহর থানাধীন ছোটপুল থেকে তাকে আটক করা হয়।

 

এমএইচকে/চখ

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...