chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

পরিবেশ ও সাগরের অপূরণীয় ক্ষতি করছে সিডব্লিউটিপি/জরিমানা গুনল ১৫ লাখ

চট্টগ্রাম ডেস্ক : কারখানার অপরিশোধিত তরল বর্জ্য বঙ্গোপসাগরে নির্গত করে পরিবেশ ও সাগরের অপূরণীয় ক্ষতি করছে চট্টগ্রাম ইপিজেডের কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগার চিটাগাং ওয়েস্ট ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট (সিডব্লিউটিপি)।

এনএসআই মেট্রো শাখার এমন তথ্য পাওয়ার পর রবিবার চট্টগ্রাম মহানগর পরিবেশ অধিদফতরের কার্যালয়ে শুনানির দিন ধার্য করে অধিদফতর।

শুনানিতে প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে প্রতিষ্ঠানটিকে ১৪ লাখ ৭৬ হাজার ৮শ টাকা জরিমানা করা হয়। তাছাড়া প্রতিষ্ঠানটিকে আগামী এক মাসের মধ্যে পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম গবেষণাগারের মাধ্যমে তরল বর্জ্যের গুণগত মান বিশ্লেষণী ফলাফল দাখিল করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. নুরুল্লাহ নূরী জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে গত ৯ সেপ্টেম্বর প্ল্যান্টটি সরেজমিন অনুসন্ধান করতে যান এনএসআই’র একটি টিম। এসময় তারা জানতে পারে চট্টগ্রাম ইপিজেডের ক্ষতিকর প্রায় ১ লাখ ঘনমিটার তরল বর্জ্য বঙ্গোপসাগরে ফেলা হচ্ছে। এতে পরিবেশ ও সাগরের অপূরণীয় ক্ষতি হচ্ছে।

তাদের দেয়া প্রতিবেদনে বলা হয় প্রতিদিন ৯ হাজার ২শ ৩০ ঘনমিটার হিসেবে গত ১০ দিনে ৯২ হাজার ৩শ ঘনমিটার তরল বর্জ্য র্নিগত করেছে। এদিকে গত ১০দিন ধরে অকার্যকর ছিল সিডব্লিউটিপি।

এ কারণে মহানগর পরিবেশ অধিদপ্তরের কার্যালয়ে রোববার শুনানি শেষে ১৪ লাখ ৭৬ হাজার ৮শ টাকা জরিমানা করা হয়। তাছাড়া সিডব্লিউটিপির কারিগরি ত্রুটি সমাধানে ৭ দিনের সময় দেওয়া হয়। শুনানিতে সিডব্লিউটিপির পরিচালক নূর মোহাম্মদসহ প্রতিষ্ঠানের উদ্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে অনুমতি বিহীন পাহাড় কেটে পরিবেশের ক্ষতি করার অপরাধে আরো এক ব্যাক্তিকে ৮০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক মো. নুরুল্লাহ নূরী।

তিনি বলেন, মহানগরীর দক্ষিণ খুলশী এলাকায় পাহাড় কাটার অপরাধে মোতাহার হোসেন চৌধুরীর কাছ থেকে এ জরিমানা আদায় করা হয়।

চখ/রাজীব

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...