পিকআপ ভ্যানে ঘুরে ছিনতাই করে ওরা (ভিডিওসহ)

নিজস্ব প্রতিবেদক : নগরীতে পিকআপ ভ্যানে ঘুরে ছিনতাই চক্রের সন্ধান পেয়েছে পুলিশ। গত ৫ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে ছিনতাইয়ের স্বীকার হন ড্রাইভার আইয়ুব আলী(৫০)। পরের দিন সকালে আগ্রাবাদ মা ও শিশু হাসপাতালে মারা যান তিনি।

ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে অভিযানে নামে ডবলমুরিং থানা ও মহানগর গোয়েন্দা (বন্দর) পুলিশের যৌথ টিম। এ ঘটনায় টানা ৬০ ঘন্টা অভিযান চালিয়ে চক্রের সক্রিয় ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পিকআপ ভ্যানে ঘুরে ছিনতাই করে ওরা

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-মো রাব্বী প্রকাশ রাব্বি (২২), আল আমিন (২২), মো. সোহেল (২৫), মো. বাবু ওরফে ছোট বাবু ওরফে শাকিল (২০) ও মো. কামাল হোসেন ওরফে রনি (২০)।

সিসিটিভি ফুটেজে বের হল আইয়ুব হত্যার রহস্য

Posted by Chattolar Khabor on Tuesday, September 8, 2020

ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে দেখা যায়, মাত্র দশ সেকেন্ড সময়ে খুবই সুনিপুন হাতে এ ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে।সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায় আইয়ুব আলী রিকশা করে গন্তব্যে যাচ্ছেন। এমন সময় পেছন থেকে একটি পিকআপ ভ্যান আসে। ভ্যান থেকে চারজন নেমে এসে ঘিরে ফেলে রিকশায় থাকা আইয়ুব আলীকে। পরে তাকে ছুরিকাঘাত করে সাথে থাকা ব্যাগটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়।আহত অবস্থায় আইয়ুব আলীকে চট্টগ্রামের মা ও শিশু হাসপাতালে নিয়ে যায় রিকশা চালক। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরদিন সকালে আইয়ুব আলী মারা যান।

উপ-পুলিশ কমিশনার,(পশ্চিম) ফারুক উল হক চট্টলার খবরকে জানান, এবারের ছিনতাইয়ে আমাদের কাছে নতুন একটি বিষয় উদ্ভাবিত হয়েছে। সেটি হলো পিকআপ ভ্যান ব্যবহার করে ছিনতাই। এর আগে আমরা সিএনজি, মোটরসাইকেল, প্রাইভেট কার যোগে ছিনতাই করতে দেখেছি। কিন্তু এই প্রথম পিকআপ ভ্যান ব্যবহার করে ছিনতাইয়ের ঘটনা আবিষ্কার করলাম।

গ্রেপ্তারকৃত সকলেই একাধিক ছিনতাই মাদক ও মামলার আসামি।সামান্য কিছু টাকা পয়সার জন্যে এরা ছিনতাই করতে গিয়ে মানুষ হত্যা করে।

তিনি আরও বলেন, চক্রটি নগরীর বিভিন্ন স্থানে পিকআপ ভ্যানে ঘুরে ঘুরে রেঁকি করতো।পরে অর্তকিত হামলা করতো। ড্রাইভার আইয়ুব আলীর ভাগ্যে এমনটায় ঘটেছে।

এ বিষযে উপ-পুলিশ কমিশনার ডিবি (বন্দর) এসএম মোস্তাইন হোসেন চট্টলার খবরকে বলেন, ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটলে অনেকে পুলিশের কাছে আসতে চান না। কিন্তু এ ঘটনায় সম্পূর্ন নিজ উদ্যোগে পুলিশ মাঠে নেমে ৫ আসামিকে আটক করে। তাই যে কোন অপরাধ সংগঠিত হলে অবশ্যই লোকাল থানাকে জানাতে হবে।থানা জানতে পারলে ডিবি পুলিশ এমনিতেই জেনে যায়।

নিহত আইয়ুব আলী ফরিদপুর জেলার নাগরকান্দা এলাকার কাশেম শরীফের ছেলে। তিনি ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকায় বসবাস করতেন।

কামরুল/চখ/এএমএস

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...