মহানায়কের জন্মদিন

ডেস্ক নিউজঃ আজ ৩ সেপ্টেম্বর। ভুবন ভোলানো হাসির অধিকারী মহানায়ক উত্তম কুমারের জন্মদিন।

উত্তম কুমারের আসল নাম অরুন কুমার চ্যাটার্জি। সিনেমায় এসে হয়ে যান উত্তম কুমার।তিনি ১৯২৬ সালের এই দিনে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেন। কলকাতার সাউথ সাবারবান স্কুল থেকে ম্যাট্রিক পাশ করেন। ভর্তি হন গোয়েঙ্কা কলেজে। মধ্যবিত্ত পরিবারের হাল ধরার জন্যে গ্র্যাজুয়েশন শেষ না করেই কলকাতা পোর্টে কেরানীর চাকরি শুরু করেন।

৫০ এর দশকে ‘দৃষ্টিদান’ দিয়ে সিনেমা জীবন শুরু।  এরপর প্রথম ছবি হিসেবে ‘দৃষ্টিদান’ ছবিটিও ব্যর্থ হয়।  অবশেষে রূপালি পর্দায় ‘মায়াডোর’ দিয়ে উত্তম কুমারের শুরু।  ‘বসু পরিবার’ ছবিটি দিয়ে খানিকটা পরিচিতি আসে।  ১৯৫৩ সালে ‘সাড়ে চুয়াত্তর’ ছবি দিয়ে বাংলা চলচ্চিত্রে ঝড় তোলেন উত্তম কুমার।  এই ছবির মধ্য দিয়েই বাংলা চলচ্চিত্র পায় তার সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা।  শুরু হয় উত্তম যুগ।  পঞ্চাশ ও ষাটের দশকে ‘হারানো সুর’, ‘পথে হল দেরী’, ‘সপ্তপদী’, ‘চাওয়া পাওয়া’, ‘বিপাশা’, ‘জীবন তৃষ্ণা’ আর ‘সাগরিকা’-এর মতো কালজয়ী সব ছবি করে আকাঙ্খিত মুখ হয়ে ওঠেন উত্তম।

১৯৬৩ সালে উত্তম কুমার তার পরিবার ছেড়ে চলে যান।  মৃত্যুর আগ পর্যন্ত দীর্ঘ ১৭ বছর তিনি তৎকালীন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুপ্রিয়া দেবীর সঙ্গে বসবাস করেন।  এই নায়ক ১৯৮০ সালের ২৪ জুলাই কলকাতার টালিগঞ্জে মৃত্যুবরণ করেন।   চিরবিদায় নেয়ার পরও বাংলার মানুষের মনে থেকে গেছেন মহানায়ক হয়েই। যতো দিন বাংলা সিনেমা থাকবে তার নাম থাকবে অমর হয়ে।

 

Loading...