চীনে অস্ট্রেলিয়ান সাংবাদিক আটক

ডেস্ক নিউজঃ একজন অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক ও প্রখ্যাত টিভি উপস্থাপিকাকে আটক করেছে চীনা কর্তৃপক্ষ। উপস্থাপিকার নাম চেং লেইকে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী মারিসে পেইন বলেছেন, ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে চেংয়ের সঙ্গে চেংয়ের সঙ্গে একটি ভার্চুয়াল বৈঠক করেছে অস্ট্রেলিয়ার কনস্যুলার অফিস। চীনে আটকের ঝুঁকি বাড়তে থাকায় জুলাইয়ে নিজের নাগরিকদের সতর্ক করে দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার সরকার।

দুই দেশের সম্পর্কে ইদানীং অস্থিরতা বেড়ে গেছে। বিশেষ করে চীনে করোনাভাইরাসের উৎস নিয়ে অস্ট্রেলিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তর্জাতিক তদন্তের আহ্বান জানানোর পর থেকে।

সোমবার অস্ট্রেলিয়ান মদ আমদানী নিয়ে দ্বিতীয় তদন্তের ঘোষণা দিয়েছে চীন। গত সপ্তাহে অস্ট্রেলিয়ার ফেডারেল সরকার একটি আইন প্রণয়নের পরিকল্পনা করছে, যাতে করে বিদেশি দেশগুলোর সঙ্গে স্থানীয় সরকার চুক্তি বাতিল করতে পারবে। ধারণা করা হচ্ছে চীনকে উদ্দেশ্য করেই এই আইন।

এবিসি নিউজের প্রতিবেদনে জানা গেছে, ‘একটি নির্ধারিত স্থানে আবাসিক নজরদারিতে’ আটক রয়েছে চেং। দেশটিতে কোনও নির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়াই সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে প্রশ্ন করতে পারেন তদন্তকারীরা এবং ছয় মাসের জন্য কারাবাসেও রাখতে পারেন। বেইজিং এখনও চেংয়ের অবস্থান নিয়ে কোনও মন্তব্য করেনি। অস্ট্রেলিয়ান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তার আটকের ব্যাপারে ১৪ আগস্ট জানতে পেরেছিল।

২৭ আগস্ট চেংয়ের সঙ্গে কথা বলে অস্ট্রেলিয়ান কনস্যুলার। তার দুই ছোট সন্তান অস্ট্রেলিয়ায় আছে। এবিসি নিউজ বলেছে তার পরিবার ও বন্ধুরা সপ্তাহখানেক তার সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি।

সিজিটিএনে আট বছর ধরে কাজ করেন চেং এবং বৈশ্বিক বাণিজ্য নিয়ে একটি অনুষ্ঠানের উপস্থাপিকা তিনি। আগে সিএনবিসি এশিয়া’স চীনার করেসপন্ডেন্ট ছিলেন। আটকের পর থেকে সিজিটিএনের ওয়েবসাইটে চেংয়ের প্রোফাইল ও তার আর্টিকেল সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

২০১৯ সালের জানুয়ারিতে চীনা-অস্ট্রেলিয়ান লেখক ইয়াং হেনগুনকে আটক করা হয়। তার বিরুদ্ধে চীনের জাতীয় নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ফেলার অভিযোগ আনা হয়। এখনও তিনি আটক রয়েছেন।

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...