অল্প সময়ে জনপ্রিয়তার রহস্য জানালেন রিয়েলমির প্রতিষ্ঠাতা

প্রযুক্তি ডেস্ক: প্রতিষ্ঠার অল্প সময়ের মধ্যেই দারুণ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে বিশ্বের অন্যতম স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান রিয়েলমি। কাউন্টারপয়েন্টের প্রতিবেদন অনুসারে, চীনা প্রতিষ্ঠানটি আন্তর্জাতিক বাজারে টানা চার প্রান্তিকে বিশ্বের দ্রুততম বর্ধনশীল স্মার্টফোন ব্র্যান্ডের স্থান ধরে রেখেছে।

২০২০ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিকে (এপ্রিল-জুন) একমাত্র স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হিসেবে অর্জন করেছে দুই অঙ্কের-১১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি।

মাত্র দুই বছর বয়সী এই প্রতিষ্ঠানটি ইতোমধ্যে পৌঁছে গেছে বিশ্বের ৬১টির বেশি বাজারে। ২০০৮ সালে স্মার্টফোন শিল্পে যাত্রা শুরু করা রিয়েলমির গ্রাহক সংখ্যা বর্তমানে ৪ কোটির বেশি।

সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির দ্বিতীয় প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদযাপন অনুষ্ঠান ‘দ্য রিয়েলমি ৮২৮ ফ্যানফেস্ট’ -এ লেখা এক খোলা চিঠিতে রিয়েলমি’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী স্কাই লি ব্র্যান্ডটির দ্রুত প্রবৃদ্ধি ও আন্তর্জাতিক সফলতার পেছনের কারণগুলো তুলে ধরেছেন।

লি বলেন, ‘আমরা একদম শুরু থেকে নিজেদের তৈরি করেছি। তারুণ্য এবং তরুণ পেশাদারদের কাছে আমাদের ‘ডেয়ার টু লিপ’ বার্তা নিয়ে পৌঁছাতে আমরা আমাদের দলের কর্মীদের সুযোগ করে দিয়েছি। এ উদ্যমই আকাঙ্ক্ষায় পরিণত হয়ে সকল সংস্কৃতিকে ছাড়িয়ে গেছে এবং সবজায়গায় তরুণদের কাছে যা সমাধিক পরিচিত।’

অর্থবহ কন্টেন্টের মাধ্যমে ফ্যান ও ক্রেতাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হতে স্থানীয় টিম নিয়োগ দিয়ে নিজেদের অঞ্চলভিত্তিক বিপণন ক্যাম্পেইন তৈরি করেছে ব্র্যান্ডটি।

দামের সাশ্রয়ের পাশাপাশি তরুণরা উচ্চ মানসম্পন্ন ডিভাইস এবং ট্রেন্ডসেটিং ডিজাইন পছন্দ করে। এক্ষেত্রে, রিয়েলমি তরুণদের চাহিদাকে অগ্রাধিকার দিয়েছে।

লি বলেন, ‘আমরা আমাদের লক্ষ্যের প্রতি অবিচল ছিলাম বলেই অনেক দ্রুত প্রবৃদ্ধির দিকে এগিয়ে গিয়েছি। চমৎকার পারফরম্যান্স ও ট্রেন্ডসেটিং ডিজাইনে পণ্য তৈরি করা এবং ইন্টারনেট অব থিংসের মাধ্যমে তরুণদের জন্য স্মার্ট লাইফ তৈরি করা আমাদের লক্ষ্য। এক্ষেত্রে, ধারাবাহিক হওয়া এবং নিজেদের সত্যিকার ব্র্যান্ড ভ্যালু তুলে ধরার মাধ্যমে আমরা সবার আস্থা অর্জন করেছি, যা আমাদের মতো নবীন প্রতিষ্ঠানের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’

খোলা চিঠিতে লি আরো বলেন, ‘দুই বছরে আমরা প্রমাণ করেছি একটি নতুন ব্র্যান্ডেরও সুযোগ রয়েছে, আর এটা শুরু মাত্র। ভবিষ্যতে অপার সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে, ‘ডেয়ার টু লিপ’ ভাবনা নিয়ে আমরা সামনে এগিয়ে যাবো।’

এমআই/

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...