chattolarkhabor
চট্টলার খবর - খবরের সাথে সারাক্ষণ

১১৪৩ কোটি টাকা ভর্তুকি পেল পিডিবি

ডেস্ক নিউজ: সম্প্রতি লোকসানের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) ভর্তুকি সহায়তা চেয়ে অর্থবিভাগে চিঠি দিয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে অর্থবিভাগ থেকে শর্তসাপেক্ষে ১১৪৩ কোটি ৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ভারত থেকে উচ্চদামে বিদ্যুৎ কিনে কম দামে গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করায় ১ হাজার ৮৬০ কোটি ৪ লাখ টাকার ক্ষতির মুখে পড়েছে পিডিবি। এই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে সরকার কাছ থেকে আর্থিক সহায়তা পেলে বিদ্যুৎ উৎপাদন কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা সম্ভব হবে।

পিডিবির চিঠিতে আরও বলা হয়েছে, বিদ্যুৎ-উৎপাদন ব্যয় নির্ভর করে ব্যবহৃত জ্বালানির ওপর। বর্তমানে বিদ্যুতের স্থির ব্যয় বেড়েছে। সরকার বিদ্যুতের উৎপাদন ব্যয় কমানোর জন্য দীর্ঘমেয়াদি কয়লাভিত্তিক বৃহৎ বিদ্যুৎকেন্দ্র, কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র ও নিউক্লিয়ার বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনের জন্য কাজ করে যাচ্ছে।

এর মধ্যে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র চালু হলে তরল জ্বালানিভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন কমবে। ফলে বিদ্যুতের ওপর ব্যয়ও কমবে। ওই চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে অর্থ বিভাগ থেকে গত ১৭ আগস্ট পিডিবিকে ১১৪৩ কোটি ৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে অর্থ বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেন, সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী দেশের বিদ্যুৎচাহিদা মেটাতে আইপিপি, রেন্টাল পাওয়ার অ্যান্ড কুইক রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্টে উৎপাদিত বিদ্যুৎ বেশি দামে কিনে কম দামে গ্রাহক পর্যায়ে সরবরাহ করছে। এ জন্য পিডিবিকে লোকসান গুনতে হয়েছে। এই লোকসানের বিপরীতে ১১৪৩ কোটি ৬ লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে। তবে তাদের কয়েকটি শর্তও দেওয়া হয়েছে।

অর্থ বরাদ্দের বিপরীতে দেওয়া শর্তগুলো হচ্ছে, এই টাকা কুইক রেন্টাল পাওয়ার ও আইপিপি-এর বিল পরিশোধ ছাড়া অন্য কোনো উদ্দেশ্যে ব্যবহার করা যাবে না। এই টাকা দিয়ে বিল পরিশোধের বিবরণী পরবর্তী প্রস্তাবের সঙ্গে অর্থ বিভাগে দাখিল করতে হবে।

আইপিপি, রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্ট অ্যান্ড কুইক রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্টের মাসভিত্তিক আর্থিক ক্ষতির বিবরণী আলাদাভাবে পরবর্তী মাসের ১ম সপ্তাহের মধ্যে অর্থ বিভাগে পাঠাতে হবে। এ অর্থ ভবিষ্যতে অডিটের মাধ্যমে নিরূপিত মোট প্রদেয় অর্থের সঙ্গে সমন্বয় করতে হবে। বিদ্যুতের উৎপাদন দাম কমানোর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতেও এতে বলা হয়েছে।

এমআই/

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...