নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলাকারীর যাবজ্জীবন সাজা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ২০১৯ সালের ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের দুটি মসজিদে নারকীয় হত্যাকাণ্ড চালানো ব্রেটন ট্যারেন্টকে যাবজ্জীবন সাজা দিয়েছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। মসজিদে হামলা ও ৫১ জনকে হত্যার ঘটনায় তাকে এ সাজা দেওয়া হয়েছে।

প্যারোল ছাড়া এ ধরনের সাজার ঘটনা দেশটিতে এই প্রথম। রায় শেষে বিচারক ব্রেটনের এ কর্মকান্ডকে অমানবিক উল্লেখ করেন। চারদিনের শুনানিতে অংশ নেন হামলার শিকার ৬০ জন।

২৯ বছর বয়সী ব্রেটনের বিরুদ্ধে আনা ৫১ জনকে হত্যা, আরও ৪০ জনকে হত্যা চেষ্টা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের একটি অভিযোগের সবগুলোর দায় স্বীকার করেছে সে।

২০১৯ সালের ১৫ মার্চে ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে হামলা চালায় অস্ট্রেলীয় নাগরিক ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ ঘটনা সরাসরি সম্প্রচারও করেন ব্রেন্টন।

প্রথমে আল নুর মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে আসা মুসল্লিদের ওপর গুলি শুরু করেন তিনি। তারপর এই মসজিদ থেকে ৫ কিলোমিটার দূরে লিনউড মসজিদের উদ্দেশে গাড়ি চালান। সেখানেও মুসল্লিদের ওপর অতর্কিত গুলি করেন ব্রেন্টন।

এই হামলা বিশ্বজুড়ে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দিয়েছিল। হামলার পর দ্রুত অস্ত্র আইনে পরিবর্তন আনে নিউজিল্যান্ড। দেশটির সরকার দ্রুত যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে প্রশংসিত হয়।

এর আগে পুলিশকে ব্রেন্টন জানিয়েছিলেন, হামলার দিন আরও মানুষকে হত্যা করার ইচ্ছা ছিল ট্যারেন্টের। ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদ পুড়িয়ে দেওয়ার ইচ্ছাও ছিল তার। এছাড়া ক্রাইস্টচার্চে হামলার আগে আরও একটি মসজিদে হামলার পরিকল্পনা করেছিল এই সন্ত্রাসী।

এমআই/

Loading...