বৃষ্টির কারণে সড়কের মেরামত কাজ স্থগিত হওয়ায় সুজনের দুঃখ প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের যে সমস্ত সড়কে খানা-খন্দক সহ দৃশ্যমান ভাঙাচোরা রয়েছে সেগুলো তাৎক্ষণিকভাবে প্যাচওয়ার্কের মাধ্যমে দ্রত মেরামত ও সংস্কারের চলমান কাজ বৃষ্টি জনিত কারণে স্থগিত থাকায় চসিক প্রশাসক দুঃখ প্রকাশ করে নগরবাসীদের আপাতত ধৈর্য্য ধারণের অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। তবে তিনি বলেছেন বৃষ্টির ফাঁকে ফাঁকে বা বিরতিতে যাতে মেরামত ও খানা-খন্দক ও ভাঙাচোরা অবস্থা সাড়ানোর কাজ সম্পন্ন করতে চসিকের সংশ্লিস্ট বিভাগের জনবলকে প্রস্তুত রাখা আছে।

তিনি নগরবাসীকে জ্ঞাত করেন যে, সড়ক মেরামত কাজে বালি,স্টোন চিপস্ ও বিটুমিনের সমন্বয়ে যে মিক্সারটি তৈরী করা হয় তা ৮ ঘন্টার বেশি রাখা যায় না। নির্দিষ্ট সময় অতিক্রম হলে এর ব্যবহার উপযোগীতা হারায়। এ বাস্তবতা বিবেচনায় বৃষ্টির ঘনঘটায়  বেশি করে মিশ্রণ তৈরী সম্ভব হচ্ছে না।  এও দেখা গেছে যে, অতিরিক্ত মজুদকৃত মিশ্রণ তড়িঘড়ি করে সড়ক মেরামত কাজে ব্যবহৃত হলেও তার স্থায়িত্ব খুবই কম এবং যেখানে মেরামত হয়েছে তা আবার আগের অবস্থায় ফিরে যাওয়ার আশঙ্খা থাকে সাথে চসিকের বিপূল পরিমাণ অর্থ ও শ্রম নষ্ট হয়।

তারপরও জনজীবনে স্বস্তি দিতে চসিকের পক্ষ থেকে প্যাচওয়ার্ক কার্যক্রম চলমান রয়েছে। তবে যেসব এলাকায় খুব বেশি বেহাল অবস্থা কিংবা চসিকের দৃষ্টিগোচর হচ্ছেনা তেমন এলাকায় বসবাসরতারা চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন এর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম কিংবা হোয়াটসআ্যাপে তুলে ধরলে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

এবিষয়ে প্রশাসক নগরবসীর দৃষ্টি আকর্ষণকরেছেন। বর্তমানে যেসব এলাকায় চসিকের ৯টি ডিভিশনের মাধ্যমে প্যাচওয়ার্ক কার্যক্রম চলছে তা হলো ফকিরহাট, কালা মিয়া বাজার, বহদ্দারহাট ফ্লাইওভার, এফ আই ডিসি রোড, সল্টগোলা ক্রসিং, বন্দর কাস্টম, জাকির হোসেন রোড।

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...