বলুয়ারদীঘি মহাশ্মশানের মাটি ভরাটের জন্য নওফেল ৪ লক্ষ টাকা অনুদান

নিজস্ব প্রতিবেদক : চট্টগ্রামে সনাতনী সম্প্রদায়ের মৃতদেহ সৎকারের প্রধান শ্মশান বলুয়ারদীঘি অভয়মিত্র মহাশ্মশানের জোয়ারের পানির কারণে সৃষ্ট জলাবদ্ধতার সংকট নিরসনে মাটি ভরাটের জন্য ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ৩ লক্ষ টাকা এবং সরকারি তহবিল থেকে ১ লক্ষ টাকা মোট ৪ লক্ষ টাকা নগদ অনুদান প্রদান করেছেন চট্টগ্রাম-৯ সংসদীয় আসনের সংসদ সদস্য ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

চট্টগ্রামে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রধান মৃতদেহ সৎকারের স্থান বলুয়ারদীঘি অভয়মিত্র মহাশ্মশানে সম্প্রতি জোয়ারের পানির কারণে মৃতদেহ সৎকারের দুর্ভোগের কথা জানতে পেরে তাৎক্ষণিক স্থানীয় সাংসদ ও শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল তাঁর এক প্রতিনিধির মাধ্যমে নগদ চার লক্ষ টাকা(ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে ৩ লক্ষ টাকা এবং সরকারি তহবিল থেকে ১ লক্ষ টাকা।) অভয়মিত্র মহাশ্মশান পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী কাছে হস্তান্তর করেছেন।

এই সময় ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, মাটি ভরাট করে অভয়মিত্র মহাশ্মশান উঁচু করা হলে জোয়ারের পানি আর এই স্থানে প্রবেশ করতে পারবে না। জলাবদ্ধতা না থাকলে সনাতন সম্প্রদায় তাদের আপনজনের মৃতদেহ সৎকার যথাযথ ধর্মীয় নিয়ম নীতি অনুসরণ করে নিরাপদে ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে পারবে। আগামীতেও বলুয়ারদীঘি অভয়মিত্র মহাশ্মশানের সার্বিক উন্নয়নে পাশে থাকবেন বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী নওফেল।

উল্লেখ্য, বলুয়ারদীঘি অভয়মিত্র মহাশ্মশানের আলোকায়নের জন্য সোলার এলইডি লাইট ও করোনা দুর্যোগকালীন সময়ে মৃতদেহ সৎকার কারীদের সুরক্ষা সামগ্রী প্রদান করে ছিলেন স্থানীয় সাংসদ ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...