৭ বছর পর ফাইনালে বায়ার্ন

ডেস্ক নিউজ : হেভিওয়েট সব দলকে হারিয়ে দশ বছর পর চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালে উঠেছিল লিওঁ। সিঙ্গেল লেগের সেমিতে কঠিন প্রতিপক্ষ বায়ার্ন মিউনিখের তুলনায় ধারে-ভারে ছোট দল হলেও চেষ্টা কম করেনি এবারের আসরে চমক দেখানো দলটি। একের পর এক আক্রমণ করে কাঁপিয়ে দিয়েছিল টুর্নামেন্টের হট ফেভারিট বায়ার্নকে। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি লিওঁ। ধীরে ধীরে ম্যাচে নিয়ন্ত্রণ গুছিয়ে নিয়ে ফের অনবদ্য এক ম্যাচ উপহার দিল হ্যান্সি ফ্লিকের শিষ্যরা। সেমিফাইনালে ফ্রান্সের ক্লাব লিঁওকে ৩-০ গোলে হারিয়ে ৭ বছর পর ফাইনাল নিশ্চিত করে তারা।

বায়ার্নের হয়ে প্রথমার্ধে জোড়া গোল করেছেন সার্জি জিনাব্রি। দ্বিতীয়ার্ধে অপর গোলটি করেছেন রবার্ট লিওয়ানডোস্কি।

বুধবার (১৯ আগস্ট) দিবাগত রাতে পর্তুগালের লিসবনে এক লেগের সেমিফাইনালে ম্যাচের শুরু থেকে আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে বায়ার্ন।

হ্যান্স ফ্লিকের শিষ্যরা এগিয়েও যায় ১৮তম মিনিটে। জশুয়া কিমিচের লং পাস থেকে বল পেয়ে রাইট-উইং ধরে ক্ষিপ্র গতিতে এগিয়ে যান নাব্রি। এরপর লিঁওর রক্ষণভাগকে তছনছ করে নেন জোরালো শট। গোলরক্ষক অ্যান্থনি লোপেজকে ফাঁকি দিয়ে বল জড়িয়ে যায় জালে।

৩৩ মিনিটের মাথায় লেভানডোফস্কির নেওয়া শট গোললাইন থেকে ফিরিয়ে দেন লিঁওর গোলরক্ষক অ্যান্থনি লোপেস। কিন্তু বল চলে যায় সামনে থাকা জিনাব্রির কাছে। এবারও বাম পায়ের শটে নিশানা ভেদ করেন এই জার্মান ফুটবলার। এটা ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগের চলতি মৌসুমে ৯ ম্যাচে তার নবম গোল।

দ্বিতীয় গোল হজমের পর অবশ্য ম্যাচে ফিরতে মরিয়া হয়ে ওঠে লিঁও। বিরতি থেকে ফিরে বার কয়েক আক্রমণ চালায় তারা। কিন্তু ব্যবধান গোছানো সম্ভব হয়নি ফরাসি ক্লাবটির। উল্টো শেষ মুহূর্তে আবারও পিছিয়ে পড়ে তারা।
এবার আর সুযোগ মিস করেননি লিওয়ানডোস্কি। ৮৮তম মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে কিমিচের আরেকটি পাসে লিঁওর জালে বল জড়িয়ে দেন পোলিশ স্ট্রাইকার। বায়ার্নের জার্সিতে চলতি মৌসুমে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা লিওয়ানডোস্কির এটি সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ৫৫তম গোল।

চ্যাম্পিয়নস লিগে নিজেদের ইতিহাসে বায়ার্নের এটি ১১তম ফাইনাল হতে যাচ্ছে। তার মধ্যে ষষ্ঠ শিরোপা জয়ের জন্য জার্মান জায়ান্টরা মুখোমুখি হবে আরেক ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেন্ট জার্মেই’র (পিএসজি)। আগেরদিন লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নরা জার্মান ক্লাব লিপজিগকে ৩-০ গোলে হারিয়ে নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল নিশ্চিত করেছে।

এসএএস/

Loading...