বিমানের টিকেট নিয়ে ভোগান্তি নিরসনে পদক্ষেপ নিন: ক্যাব

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনায় লকডডাউন খোলার পর মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশে প্রবাসীদের কর্মস্থল ও ব্যবসা বানিজ্য শুরু হলে পুনরায় ফেরত যেতে বিমানের টিকেট নিয়ে কৃত্রিম সংকট শুরু করে একটি মহল। বাংলাদেশ থেকে বিমানের বিভিন্ন রুটে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর বিমান চলাচল শুরু হয়। বর্ধিত দামে এবং রির্টান টিকেট কিনেও টিকেট পেতে নানা ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন প্রবাসীরা। বাংলাদেশ বিমানের টিকেট বিক্রয় নিয়ে নানা অনিয়ম ও অভিযোগ থাকার পরও এ সমস্ত অনিয়ম ও দুর্নীতি বন্ধে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় কার্যত কোন ব্যবস্থা গ্রহনে সক্ষম হয়নি। যার খেসারত দিতে হচ্ছে প্রবাসী শ্রমিক ও রেমিটেন্স যোদ্ধাদের। যা কোন ভাবেই গ্রহনযোগ্য নয়, বিমানের টিকেট নিয়ে রেমিটেন্স যোদ্ধাদের ভোগান্তি জাতীয় অর্থনীতির জন্য শুভকর নয় এবং প্রবাসীদের সমস্যাগুলি দ্রুত সমাধান না করলে জনমনে ক্ষোভ বাড়তে পারে।

পুনরায় ফেরত যেতে মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসীদের বিমান টিকেট প্রাপ্তিতে জঠিলতা, হয়রানি ও অব্যবস্থাপনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে অবিলম্বে প্রবাসীদের বিশেষ ব্যবস্থাপনায় কর্মস্থলে যেতে টিকেট প্রাপ্তি নিশ্চিত ও প্রয়োজনে বিমানে বিশেষ ফ্লাইটের চালুর দাবি জানিয়েছেন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম।

সোমবার (১৭ আগস্ট) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারন সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, ক্যাব মহানগরের সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম, ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নান, ক্যাব যুব গ্রুপের সভাপতি চৌধুরী কে এনএম রিয়াদ ও সম্পাদক নিপা দাস উপরোক্ত দাবি জানান।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন ফেব্রুয়ারি-মার্চ মাঝামাঝি সময়ে মধ্যপ্রাচ্য থেকে বাংলাদেশে সাড়ে চার লাখের মতো প্রবাসী রেমিটেন্স যোদ্ধারা ফেরত আসেন। করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রভাবে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল বন্ধ ছিলো। দেশে আসা বেশিরভাগ প্রবাসীর ছুটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ও কর্মস্থল শুরু হওয়ায় পনূরায় ফেরত যেতে হচ্ছে। কিন্তু করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ার পর আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ হয়ে গেলে নির্দিষ্ট সময়ে ফেরত যাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়।

ক্যাব নেতৃবন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন প্রবাসীদের নিদিষ্ঠ সময়ে তাদের কর্মস্থলে পুনরায় ফেরত যেতে প্রয়োজনে বিশেষ বিমান ফ্লাইট চালু, অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনের সুবিধা নিশ্চিতসহ টিকেট প্রাপ্তি নিশ্চিত করার দাবি জানান। বিমান টিকেট নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এর লুকোচুরি, অব্যবস্থাপনা ঈদ ও কোরবানীর সময় গণপরিবহনের টিকেট উদাওকে হার মানিয়েছে। দেশের রেমিটেন্স যোদ্ধারা, যারা দেশের অর্থনীতির চাকাকে সচল রেখেছে তাদের প্রতি এ ধরনের অমানবিক ও বিমাতাসুলভ আচরন খুবই দুঃখজনক ও অনাকাঙ্খিত।

Loading...