ভারী বৃষ্টি ও ঝড়ো বাতাসের সম্ভাবনা

ডেস্ক নিউজঃ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নিকট অবস্থানরত স্থল লঘুচাপের প্রভাবে খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের বেশিরভাগ স্থানে দফায় দফায় মাঝারি থেকে ভারী বর্ষণ অব্যাহত আছে। লঘুচাপের প্রভাবে বায়ুচাপের তারতম্য সৃষ্টি হওয়ায় বৃষ্টির সাথে ঝড়ো বাতাসের সম্ভাবনা থাকছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে উত্তর বঙ্গোপসাগর উত্তাল থাকায় দেশের সকল সমুদ্রবন্দরে ৩ নং স্থানীয় সতর্ক সংকেত অব্যাহত আছে।

এদিকে পূর্বাভাস অনুযায়ী দেশজুড়ে চলমান শক্তিশালী বৃষ্টিবলয় আঁখির প্রভাবে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগ। কক্সবাজার, টেকনাফসহ এর পার্শ্ববর্তী স্থানগুলোতে অতিভারী বর্ষণ চলছে। পাহাড়ী এলাকায় পাহাড় ধসের আশঙ্কা থাকায় সতর্ক থাকুন!

গতকালের তুলনায় আজ দেশে বৃষ্টিযুক্ত এলাকার সংখ্যা বেশি থাকবে। উপকুলীয় এলাকাসহ দক্ষিণাঞ্চলে একটানা দীর্ঘ সময় নিয়ে বৃষ্টি থাকলেও দেশের উত্তরাঞ্চলে স্বল্পস্থায়ী আকস্মিক বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। অর্থাৎ গাঢ় নীল আকাশের মাঝে সাদা কালো মেঘের আনাগোনা আবার হঠাৎ করে দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে অন্ধকার হয়ে দমকা বাতাসসহ একপশলা বৃষ্টি। তারপর আবারও বৃষ্টিবিরতি এবং রৌদ্রজ্জ্বল আবহাওয়া। যার ফলে দেশে চলমান সার্বিক ভ্যপসা গরম কমের দিকে থাকবে কিছুটা।

আজ সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয় কক্সবাজারে, ১৫৫ মিলিমিটার।

এছাড়া কুতুবদীয়া ১২২ মিলিমিটার, সন্দ্বীপ ৮২ মিলিমিটার, পটুয়াখালী ৭০ মিলিমিটার, সাতক্ষিরা ৬৮ মিলিমিটার এবং চট্টগ্রামে ৪৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়।

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...