ধর্ষণের বিচার চাইতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার পোশাক শ্রমিক!

ডেস্ক নিউজ: গাজীপুরের শ্রীপুরে পিকআপ চালক কর্তৃক ধর্ষণের বিচার চাইতে গিয়েছিলেন এক নারী পোশাক শ্রমিক। পরে সেই ইউপি সদস্যের কাছেই ধর্ষিত হয়েছেন ওই নারী।

শনিবার (২৫ জুলাই) ওই পোশাক শ্রমিক বাদী হয়ে কাওরাইদ ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড সদস্য কলিম উদ্দিন এবং পিকআপ চালক পারভেজ আহমেদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পুলিশ ওই দিনই দুপুরে পিকআপ চালক পারভেজকে গ্রেফতার করেছে।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই নারী পোশাক শ্রমিক স্থানীয় একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। কর্মস্থলে যাওয়া আসার পথে পিকআপ চালক পারভেজ আহমেদের সাথে প্রেমের সম্পর্ক হয়। গত ১৮ জুলাই রাতে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে দেখিয়ে তার বাড়িতে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে পারভেজ বাড়ি থেকে পালিয়ে গেলে ১৯ জুলাই রাতে পিকআপ মালিক ও স্থানীয় ইউপি সদস্য কলিম উদ্দিনকে বিষয়টি জানায় ওই নারী।

পরে পারভেজের সাথে বিয়ের ব্যবস্থা করা ও বিচারের ব্যবস্থার আশ্বাস দিয়ে মোটরসাইকেলযোগে দুই কিলোমিটার দূরে নিয়ে গাজারী বনের ভিতরে একটি পরিত্যাক্ত ঘরে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে ওই ইউপি সদস্য।

শ্রীপুর থানা পুলিশ জানায়, ইউপি সদস্য কলিম উদ্দিন ও পিকআপ চালকের বিরুদ্ধে একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন ওই নারী শ্রমিক। পরে শ্রীপুর উপজেলার নয়াপাড়া এলাকা থেকে পিকআপ চালক পারভেজ আহমেদকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

এমআই/

Loading...