চট্টগ্রামে খামারে গিয়েই গরু কিনতে আগ্রহ ক্রেতাদের (ভিডিওসহ)

নিজস্ব প্রতিবেদক : কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পশু পরিচর্যায় ব্যস্ত খামারিরা। চট্টগ্রামে এবার চাহিদা  অনুযায়ী পর্যাপ্ত আছে বলে জানিয়েছেন খামারিরা । তবে করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে পশু বিক্রি নিয়ে দুচিন্তায় তারা। কেউ কেউ গরু বিক্রি করতে বেছে নিয়ে অনলাইন প্লাটফর্মকে।

এদিকে গরুর ভালো দাম না পাওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকে। তবে করোনাও বৃষ্টিতে সৃষ্ট জলাবদ্ধতার কারণে হাট বসানো নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে খামারিদের মাঝে। তাই অনলাইনে গরু বিক্রির উদ্যোগ নিয়েছেন কেউ কেউ।

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় অনলাইনে কোরবানীর পশু ক্রয় এরই মধ্যে সাড়া ফেলেছে ক্রেতাদের মাঝে। ক্রেতারা বলছেন, তারা পশুরহাটে না গিয়ে খামারে গিয়ে কোরবানের গরু পছন্দ করছে। কারণ হাটে অনেক মানুষ, সামাজিক দুরত্বের বালাই থাকবে না। এছাড়াও বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা তো রয়েছে। এসব কিছু মিলে ক্রেতারা খামারে খামারে গরু কিনতে ঝুঁকে পড়েছে। হাববি নামে এক ক্রেতা বলেন, হাটে অনেক সমস্যা পোহাতে হয় তাই কোরবানির ঈদের ১৫ দিন আগে এগ্রো ফার্ম থেকে গরু কিনে রেখে দিয়েছেন। ঈদের সময় গরু বাসায় নিয়ে যাবেন। তিনি বলেন, গত বছরের তুলনায় এবার তিনি তুলনামুলক কম দামে গরু কিনতে পেরেছেন।

করোনায় হাটের চেয়ে খামার নিরাপদ -ক্রেতা

করোনায় হাটের চেয়ে খামার নিরাপদ -ক্রেতা………করোনার কারণে হাটে যাওয়া নিয়ে শংকা দেখা দিয়েছে ক্রেতাদের মাঝে। তাই অনেকেই করোনা সংম্রমনের আশঙ্কায় অনলাইনে কিংবা খামারগুলোকে হাটের চেয়ে নিরাপদ মনে করছেন কোরবানীর পশু কেনার জন্য।

Posted by The Daily Chattolar Khabor on Sunday, July 19, 2020

অনেক ক্রেতা আবার খামারে গরু দেখে পছন্দ হলেও বুকিং না দিয়ে চলে যাচ্ছে। তারা জানিয়েছেন কোরবানের ঈদের আরও সময় বাকি আছে। তাই সব খামারে ঘুরে দেখছেন। কোরবানির ঈদ ঘনিয়ে আসলে গরু কিনবেন বলে জানিয়েছেন ক্রেতারা।

 

চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজীদ বোস্তামী রোডের এশিয়ান এগ্রো ফার্মে শতাধিক গরু কোরবানীর ঈদে বিক্রির জন্য মোটাতাজা করা হয়েছে। খামারে দেশি লাল বিরিশ ছাড়াও ভারতের গরু পাওয়া যাচ্ছে।ছোট বড় বিভিন্ন সাইজের গরু রেখেন খামারি।  সেখানে ৫০ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ৪ লাখ টাকা দামের গরু মিলছে। ইতিমধ্যে এই ফার্মের অধিকাংশ গরু বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছেন খামারের মালিক ওয়াসিফ। অনলাইনেও গরু বিক্রির জন্য দেয়া হয়েছে। যেখানে পছন্দ করে গরু কেনার সুবিধা রয়েছে।

ওয়াসিফ বলেন, অনলাইনে তারা সব গরুর ছবি দিলেও তুলনামুলক কম মানুষে সরাসরি অনলাইনে গরু কিনেছে। সবাই খামারে এসে গরু দেখে পছন্দ করে গরু বুকিং দিচ্ছে। খামারে সব রকমের স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এসএএস/

এই বিভাগের আরও খবর
Loading...