বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি: মালিকসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেক হানিফ সোয়াদসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে ‘অবহেলাজনিত মৃত্যুর’ অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে নৌপুলিশ। এ ছাড়া অজ্ঞাতপরিচয় আরও পাঁচ-ছয়জনকে সেখানে আসামি করা হয়েছে।

নৌ-পুলিশের এসআই শামছুল আলম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন বলে জানিয়েছেন কেরানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ জামান।

মামলায় অন্যান্যদের মধ্যে মাস্টার আবুল বাশার, মাস্টার জাকির হোসেন, স্টাফ শিপন হাওলাদার, শাকিল হোসেন, হৃদয় ও সুকানি নাসির মৃধার নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

ওসি শাহ জামান বলেন, মামলাটির চালকসহ সকলে গা ঢাকা দিয়েছেন, এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি। পুলিশ আসামিদের ধরতে অভিযান শুরু করেছে। লঞ্চটিকে জব্দ করে পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে।

গতকাল সোমবার সকালে মুন্সিগঞ্জ থেকে সদরঘাটের দিকে যাত্রী নিয়ে আসার পথে রাজধানীর শ্যামবাজারের কাছে ‘এমএল মর্নিং বার্ড’ নামের একটি লঞ্চকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয় ‘ময়ূর-২’ নামের আরেকটি বড় লঞ্চ। এতে মুহূর্তেই মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়।

উদ্ধারকর্মীরা সোমবার দুপুর পর্যন্ত ঘটনাস্থল থেকে ৩২টি মৃতদেহ উদ্ধার করেন।

এছাড়া স্থানীয়রা আরও দুজনকে উদ্ধার করে মিটফোর্ড হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

Loading...